কবুতরের পক্স রোগ প্রতিরোধের উপায়

কবুতরের পক্স রোগের জন্য কবুতর সেক্টরে যে পরিমান ক্ষতি হয় তা অন্য রোগের ক্ষেত্রে হয় না। এটি একটি মশা বাহিত ভাইরাল রোগ এবং শীতে প্রকোপ বেশী হলেও প্রায় সব মৌসুমে কম বেশী দেখা যায়। যদিও এটি ভাইরাল রোগ, তাঁর পরও অনেকেই নানা প্রকার আন্টিবায়টিক ব্যবহারের পরামর্শ দেন। আবার অনেকেই হাঁসমুরগির জন্য তৈরিকৃত টীকা দিতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। যদিও অভিজ্ঞগণ ভাল করেই জানেন এই টীকায় কি পরিমান কাজ বা ক্ষতি হয়। অনেকেই আছেন অনেক বেদনাদায়ক চিকিৎসার শরণাপন্ন হয়ে থাকেন, আবার অনেকেই নানা প্রকার টোটকা ব্যবহার করে থাকেন। কেউ দোয়া, তাবিজ, আবার কেউ সোনা রুপার পানি ইত্যাদিও ব্যবহার করেন। অনেকের ধারনা কবুতর পক্স ও মানুষের চিকেন পক্স একই আবার কেউ কেউ সব ধরনের পক্সকে একই কাতারে ফেলে থাকেন, অথচ এগুলো এক নয়। কবুতরের পক্স এর প্রতিরোধ বা প্রতিকারের তেমন ভাল বা কার্যকারী ব্যবস্থা না থাকলেও কিছু ব্যবস্থা আছে যেগুলো থেকে ভাল প্রতিরোধ করা যেতে পারে। পক্স ও এর শ্রেণী নিয়ে পোস্ট দেয়া হয়েছে সেগুলো পড়লে এসব ব্যাপারে আরও বিস্তারিত জানতে পারবেনঃ

(more…)
Read more
  • 0

কবুতরের অন্ত্রের কৃমি ও প্যারাসাইট এর চিকিৎসা

আপনি কি কবুতরের অন্ত্রের কৃমি ও বাইরের প্যারাসাইট এর জন্য চিন্তিত?

তাহলে আপনার ক্রয়সীমার মধ্যে এক অসাধারণ Dewormer বিশেষ ভাবে পরিচিত।

জার্মান হ্যানোভার মানের প্রাকৃতিক ও কাঁচা হারবাল উপাদান দ্বারা তৈরি কবুতরের বিভিন্ন ধরনের কৃমির জন্য আদর্শ হিসবে পরিগনিত। এতে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন ই ও প্রাকৃতিক নির্যাস সমৃদ্ধ যা কবুতরের কৃমির প্রতিকারের পাশাপাশি অন্ত্রের শ্লৈষ্মিক ঝিল্লী মেরামত করে। ভিটামিন সমৃদ্ধ হবার কারনে কবুতররের স্নায়ুবিক দুর্বলতা ও ধকল মুক্ত রাখে।পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত। এক অসাধারণ কৃমির ঔষধ হিসাবে বিশেষ ভাবে সমাধৃত।

(more…)
Read more
  • 0

রিকভারি ক্যাপসুল (Recovery Caps) কবুতর ব্রিডিং এর মহৌষধ।

Oropharma(Versele-Laga) সু প্রসিদ্ধ রিকভারি ক্যাপসুল (Recovery Caps) যা আদর্শ নানা ধরনের খাদ্য সম্পূরক উপাদানে ভরপুর। আর পিল গুলো যে কোন কবুতরের জন্য অপরিহার্য এবং কবুতর ব্রিডিং এর মহৌষধ।এতে রয়েছে উচ্চ মানের প্রোটিন, অ্যামিনো অ্যাসিড, ভিটামিন, ট্রেস উপাদান এবং খনিজ পদার্থ । যা রোগ পুনরুদ্ধারের ছাড়াও প্রবায়টিক্স এবং হজম শক্তি বাড়ানোর এনজাইম রয়েছে। প্রোবায়োটিক্স এবং পাচক এনজাইম সংমিশ্রণে সুনির্দিষ্টভাবে অন্ত্রের ব্যাক্টেরিয়া এবং ক্লান্তিপ্রাপ্ত কবুতরের হজমশক্তির পদ্ধতি সঠিকভাবে পুনর্বিন্যাস করে, যা শক্তি পুনরুদ্ধারের জন্য অপরিহার্য।

(more…)
Read more
  • 0

কবুতরের সাধারন সমস্যা ও চিকিৎসা

"বস্তুতঃ ফেতনা ফ্যাসাদ বা দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি করা হত্যার চেয়েও কঠিন অপরাধ।" (সূরা বাকারাহঃআয়াত-১৯১) একবার আমার এক সাথী বললেন যে, তিনি এক তথাকথিত পীর সাহেবের বাড়িতে সন্ধ্যার সময় গেলেন। দেখলেন পীর সাহেব আয়েস করে সোফাতে আধা শায়িত অবস্থায় টিভিতে হিন্দি চ্যানেলে গান দেখছেন। এর মধ্যেই মাগরিবের আযান দিলে। পীর সাহেব শিলা কি জওয়ানি... দেখতে থাকলেন। তার এক খাস মুরিদ কে জিজ্ঞাস করা হল যে পীর সাহেব কি নামাজে যাবেন না। মুরিদ তাড়াতাড়ি জিব কেটে উত্তর দিল বেয়াদবি করেন না। আপনি জানেন পীর সাহেব এ খানে বসে আছেন ঠিকই কিন্তু মক্কা তে ইতিমদ্দেই তার আত্মা নামাজ পড়তে চলে গেছে! (নাউজুবিল্লা।) এটাই তো উনাদের ভেল্কি এ সব কারিশমা নাকি সাধারন মানুষ বুঝতে পারবে না ইত্যাদি ইত্যাদি নানা ধরনের তার কারিশমা সম্পর্কে বুঝাতে লাগল। উনার কারিশমা আর বুঝার দরকার নাই যা বুঝার বুজা হয়ে গেছে। কিছু পীর সাহেবরা কোরআনের আয়াত এর কিছু অংশ তুলে ধরেন, যেমনঃ "হে ঈমাণদারগণ! তোমরা যখন নেশাগ্রস্ত থাক, তখন নামাযের ধারে-কাছেও যেওনা, যতক্ষণ না বুঝতে সক্ষম হও যা কিছু তোমরা বলছ, আর (নামাযের কাছে যেও না) ফরয গোসলের আবস্থায়ও য…
Read more
  • 0

কবুতরের জুড়ী প্রস্তুত প্রণালী ও আদর্শ প্রজনন পদ্ধতি

কবুতরের জুড়ী প্রস্তুত প্রণালী ও সঠিক/আদর্শ প্রজনন পদ্ধতি (Pigeon Pairing and Ideal Breeding System ) "আমি প্রত্যেক বস্তু জোড়ায় জোড়ায় সৃষ্টি করেছি যাতে তোমরা হৃদয়ঙ্গম কর।" ( আল কোরআনঃ সূরা আয- যারিয়াত- আয়াত-৪৯) সামাজিক সাইট একদিকে যেমন ভাল লাগে অন্যদিকে তেমনি খারাপ লাগে সেই সব উজবুক ছেলে মেয়াদের জন্য যাদের জ্ঞান কম। যাদের স্ট্যাটাস দেখলেই বুঝা যায় কোন পরিবারের আর কোথা থেকে এসেছে। গতকাল এক ছেলে একটি অর্ধউলঙ্গ মডেলের ছবি দিয়ে লিখেছে "Heaven is inside her." ! কি ধরনের শিক্ষা সে পেয়েছে তা না হয় পরে আলোচনা করব। এসব উজবুক দের ধারনা নেই যে এসব সামাজিক সাইটগুলেতে তার বাবা তার বাবার বয়সী লোক তার ছোট ভাই বোনও থাকতে পারে। আমি স্ট্যাটাসটি দেখে যারপনায় লজ্জিত ও ব্যাথিত হলাম। কারণ এই সাইটে আমার ভাগ্নি,ভাইস্তা, ছাড়াও অনেক ছোট বড় নানা আত্মীয় স্বজন আছেন। তারা কি ভাববে...? এ সবাইকে আমার সামাজিক সাইট এর বন্ধু...? এত নিচু মন মানসিকতার। কিছু দিন আগে বাস স্ট্যান্ড এ দাড়িয়ে আছি। দুইটি স্কুল পড়ুয়া ছেলেও দাড়িয়ে আছে একটু দূরে। তারা বেশ জোরে জোরে কথা বার্তা বলছিল। কিছু কানে আসছিল। এক সময় এ…
Read more
  • 0

আপনার কবুতরের গোসল (Bath for pigeons) Written By Kf Sohel Rabbi

কবুতর অনেক কিছুর জন্য পরিচিত ও বিশ্ববিখ্যাত এবং বিভিন্ন কারণের জন্য এর চাহিদা রয়েছে। কবুতরের আকার, রং ও বিক্রয়ের জন্য কবুতরের পোষা পাখি হিসাবেও বেশ দেখা যায়। কবুতরের যত্ন এর সাথে সাথে এর কিছু ব্যাপারে আমরা সহজেই অনেক সমস্যা থেকে নিরাপদ থাকতে পারি। কবুতরের পুষ্টিকর খাবার, ভিটামিন ছাড়াও আরও একটি গুরুত্তপূর্ণ ব্যাপারে যা আমরা অনেকেই খেয়াল রাখি না, সেটা কি? সেটা হল আপনার কবুতরের গোসল করান। যদিও ব্যাপারটা খুবই সাধারন কিন্তু এর গুরুত্ব অনেক, প্রাথমিক ভাবে বলা যায় যে আপনার পায়রার দেখাশুনা ছাড়াও অনেক অনাখাঙ্খিত রোগ বালাই থাকেও নিরাপদ থাকবে আপনার কবুতর। পায়রার মালিক তাঁর কবুতর কিভাবে গোসল/ স্নান দিবে তাঁর একটা সঠিক নির্দশনা দেওয়া হলঃ ১। আপনি প্রায় হয়তো খেয়া করবেন যে আপনার কবুতরটি তাঁর পানির পাত্র টিতে স্নান করার চেষ্টা করছে এটাকে একটু ভালভাবে কিভাবে করান যায় তাই আলোচনা করবো। যেমন একটা মাপসই ক্লিন ট্রে ক্রয় বা বানাতে হবে, সেটা প্লাস্টিক অথবা টিনের হতে পারে। ট্রে টি কমপক্ষে বারো ইঞ্চি জুড়ে অধিক সাত ইঞ্চি গভীর ট্রে নির্বাচন করুন, পরিষ্কার জল তিন বা চার ইঞ্চি ট্রে পূরণ কর…
Read more
  • 0

বর্ষাকালীন মাসিক ছক ভিত্তিক কবুতরের খাদ্য Monthly pigeon food Chart of rainy season

বর্ষাকালীন সময়ে শীতের মতই একটু বেশী খেয়াল রাখতে হবে যেন আপনার কবুতরের খাদ্য পরিমিত তৈল বীজ যুক্ত থাকে। যেমনঃ বাজরা , তিসি, সরিসা, কুসুম বিচি, সূর্যমুখী বিচি ইত্যাদি। খেয়াল রাখতে হবে যেন আপনার খামার শুকনো থাকে, যদিও এই বর্ষায় এটা খুবই কঠিন একটা কাজ, আর সম্ভব হলে ছোট এক টুকরা কাপড়, পেপার, বা চট দিতে পারেন। নিয়মিত ক্যালসিয়াম দিতে হবে, E+D ভিটামিন যোগ করে, কারন ভিটামিন ই যোগ না করলে ক্যালসিয়াম বেশি মাত্রাই শোষিত হবে না কবুতরের শরীরে।(মাসে ৩/৪ দিন, তবে যদি গরম বেড়ে যাই তবে এর মাত্রা কমিয়ে দিবেন।)। তবে খামার সব চময় ঠাণ্ডা রাখার চেষ্টা করবেন। কারন ঠাণ্ডা থেকে গরমেই সমস্যা বেশী কবুতরের হয়। আমরা উপরের বিষয় গুলো যদি পর্যালোচনা করি তাহলে, তিনটি বিষয় পরিলক্ষিত হয়ঃ (more…)
Read more
  • 1

আপনার কবুতরের উপবাস Fasting of pigeon

উপবাস (fasting of pigeon) খুব বিস্ময়কর শব্দ কিন্তু তার সত্যিকারের উপকারিতা আছে। আপনি আপনার কবুতর কে প্রতি সপ্তাহে বা ২ সপ্তাহে অন্তর বা অন্তত মাসে একবার উপবাস রাখুন। আমরা সবাই জানি সব পশু পাখি অধিকাংশ সময়ই তাদের Corp বা পেটে কিছু অতিরিক্ত খাবার সঞ্চয় রাখে প্রয়োজনীয় বা জরুরী অবস্থার জন্য বা অন্য যে প্রয়োজনে, আর যখন এই খাবার তারা হজম করতে পারে না, যখন তারা স্বাভাবিক ভাবেই খাদ্য পায়। তারা এই undigested / বা সঞ্চিত খাদ্য যখন হজম করতে পারে না, ফলে এটি Corp / পেট সংক্রমণ হতে পারে বা অন্য কোন ব্যাকটেরিয়া সমস্যা হতে পারে। তাই আমরা তাদের কিছু সময় রোযা/উপবাস রাখুন। (খাদ্য ও জল অন্তত ৪/৫ ঘন্টা ছাড়া) কিন্তু এই প্রক্রিয়া অসুস্থ যারা বা squab বা বাচ্চা আছে বা যারা ঔষধ অধীনে আছে এমন পায়রার জন্য প্রযোজ্য নয়। মনে রাখবেনএই প্রক্রিয়া শুধুমাত্র কয়েক ঘন্টার জন্য সমগ্র দিনের জন্য নয়। এই প্রক্রিয়া সকালে সময় প্রয়োগ করা উচিত। মনে রাখবেন এই প্রক্রিয়া পাখি / পায়রার হজম ক্ষমতা বাড়াতে ও আরও অনেক অপ্রত্যাশিত রোগ থেকে রক্ষা করবে এবং প্রয়োজনীয় এনজাইম বৃদ্ধি হবে। লেখক : সোহেল রাবি ভাই
Read more
  • 0

কিছু কবুতরের ঔষধ যা মজুত রাখা জরুরি

“শক্তির সৃষ্টি বা বিনাশ নাই, কেবল এক শক্তি থেকে আরেক শক্তিতে রূপান্তরিত হয় মাত্র।“-(আলবার্ট আইনস্টাইন।) আফ্রিকার হিংস্র প্রাণীর যদি তালিকা করা হয়, তাহলে প্রথমেই আমাদের মনে ভেসে উঠবে তা হল সিংহের ছবি ! কিন্তু বাস্তবে আফ্রিকার বেশী হিংস্রতার দিক দিয়ে জলহস্তীর নাম আগে আসে, অথচ মানুষ এই প্রাণীটিকে গুরুত্ব দেয় কম। সিংহের নাম আসে তিন নম্বরে, আর মানুষ সেই সিংহের হাত থেকে বাচতে গিয়ে হিংস্রতম জলহস্তীর মুখে পড়ে প্রান হারায়। আমাদের কবুতর সেক্টরে আমদানিকারকদের কে বেশী দায়ী করা হয়। এই সেক্টরের এই অবস্থার জন্য, কিন্তু প্রকৃত পক্ষে যদি বিচার করি তাহলে ঘটনাটা অন্য জায়গায়। আমরা লক্ষ টাকা দিয়ে কবুতর কিনি, কিন্তু কুড়ি টাকা দিয়ে ঔষধ কেনা হয় না। আমরা হাজার টাকা দিয়ে খাঁচা বানায়, কিন্তু ১০ টাকা দিয়ে ফিডার তৈরি করা হয় না! শত টাকা দিয়ে মিক্স খাবার কেনা হয় কিন্তু বিনা খরচে সামান্য বিশুদ্ধ পানির ব্যাবস্থা করা হয় না। (more…)
Read more
  • 0

নতুন কবুতর খামারে প্রবেশের আগে আপনার অবশ্য করনীয়।

আমরা সবাই কম বেশি নতুন কবুতর ভালবাসি, আর তাই নতুন কোন কবুতর দেখলেই কিনতে ইচ্ছে করে। আর যদি সেটা ভাল জাতের হয় আর তার মধ্যে যদি দামটা নাগালের মধ্যে থাকে, তাহলেতো কথাই নাই। কিন্তু যে কোন কবুতর কেনার আগে ভাল করে পরখ করে কিনবেন। কারন আপনি হয়তো জানেন না যে আপনার নিজের অজান্তেই আপনি কি সমস্যা বাসায় বয়ে নিয়ে আসছেন। হইতো একটা সাধারন নতুন কবুতরের জন্য আপনার পুরো খামারের সব গুলোই কবুতর মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হতে পারে। তাই হাট ও কবুতর ব্যাবসায়িদের কাছ থেকে কেনার সময় সতর্ক আরও একটু বেশি হবেন। শুধু তাই নয় শখের বসে আপনি হাটে গেছেন আর বাসাই ফিরে আপনার সখের কবুতরের কাছে গেছেন তাতে হইতো কবুতর না কিনেও আপনি জীবাণু বহন করে আপনার খামারে ছড়াচ্ছেন। হইত সাধারন ব্যাকটেরিয়া ঘটিত সমস্যা আপনি খুব সহজেই সমাধান করে ফেলতে পারবেন কিন্তু জীবাণু যদি ভাইরাল হয় তাহলে মনে রাখবেন আপনি এত সহজে মুক্তি না ও পেতে পারেন। তাই নতুন কবুতর খামারে প্রবেশ করানোর আগে আপনার অতি জরুরি কিছু কাজ আছে যা আপনাকে অত্যান্ত সতর্কতার সাথে পালন করেতে হবে। (more…)
Read more
  • 0

কবুতরের সাথে যোগাযোগ মাধ্যম টেলিপ্যাথি (Make a Relation with your Pigeons via Telepathy system) Written By Kf Sohel Rabbi

Make a Relation with your Pigeons via Telepathy system টেলিপ্যাথি শব্দটা শুনে হয়তো অনেকেই ভ্রু কুচকে ফেলেছেন আর ভাবছেন যে এটার সাথে কবুতরের কি সম্পর্ক? অনেকেই হয়তো এরি মধ্যে মনে মনে সমালচনার ঝুড়ি সাজিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, এটা একটা খুবই কার্যকরী প্রক্রিয়া যা হয়তো পরবর্তী আলোচনার মাধ্যমে এই ব্যাপারটি আপনাদের কাছে পরিস্কার হয়ে যাবে। যোগাযোগ মাধ্যমে একটি অতিপ্রাকৃত ক্ষমতার ব্যায়াম বা এর মত কিছু প্রক্রিয়া। অন্য ভাবে বলা যায় যে, উপলব্ধি সহ অন্য কিছু উপায়ে মনের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করা। এছাড়াও অনুভূতি , ইচ্ছা , আবেগ চিন্তার স্থানান্তরণ দ্বারা এই ধরনের যোগাযোগ স্থাপন করা সম্ভব। "টেলিপ্যাথি" শব্দটির উদ্ভূত হয়েছে "টেলি" যার অর্থ " দূরত্ব " এবং "প্যাথি" যার অর্থ "অনুভূতি" শব্দ থেকে, সুতরাং টেলিপ্যাথি আসলে একটি দূরত্ব থেকে পাঁচটি পরিচিত ইন্দ্রিয় ব্যবহার না করে অনুভূতি সম্প্রসারিত করার জন্য পৃথক দুটি মনের মধ্যে যোগাযোগ কে , টেলিপ্যাথি বলে। (more…)
Read more
  • 0

কবুতরের হিট স্ট্রোক বা তাপ জনিত সমস্যা ( Pigeons Heat Stroke and heat problem)

“হে বুদ্ধিমানগণ! কেসাসের মধ্যে তোমাদের জন্যে জীবন রয়েছে, যাতে তোমরা সাবধান হতে পার।“ (সূরা আল বাক্বারাহঃআয়াত-১৭৯)

আমি ২০১১ সালে কোন এক জুমাবারে আমাদের খতিব হুজুর জানালেন যে দাড়ি রাখা দায়িমি সুন্নত আর রাসুলুল্লাহ(সাঃ) বলেছেন, যে দাড়িতে ক্ষুর চালাই, সে যেন আমার বুকে ক্ষুর চালাই।“  কত বড় কথা দুই চোখ পানিতে ভরে গেল তাহলে আমি জিবনে এতদিন কত বড় অন্যায় ও পাপ করেছি ! আর এর জন্য মাফ পাব কিনা জানিনা। আর আমাদের কত বড় স্পর্ধা যে, আমরা এর পরও শুনি না বা শুনেই না শুনার ভান করি ! জেনেও না জানার ভান করি ! যে রাসুল(সাঃ) আমাদের জীবনের থেকেও প্রিয় যার জন্য জীবন দিতে যেকোন মমিন এ মুহূর্ত দেরি করবে না। তার কথার পরও কিভাবে মানুষ দাড়ি কাটে, সেদিন থেকে দাড়ি কাটা বন্ধ করে দিলাম। আজকাল বিভিন্ন নায়কদের দেখে মানুষ দাড়ি রাখতেছে নবীর ভালবাসাতে দাড়ি রাখতে ভাল লাগে না কিন্তু নায়কদের ভালবাসা তাদের দাড়ি রাখতে উৎসাহিত করে। তাও ত ভাল যে কোন না কোন উসিলায় ত তারা দাড়ি রাখছে ! যায় হোক সেদিন বাসে যাচ্ছি আমি চালকের পেছনের সীটে  বসা সামনের জানালা দিয়ে দেখলাম। একদল তাবলীগের কিছু মুস্লুল্লি…

Read more
  • 0

কবুতরের টাল বা ঘাড় পক্ষাঘাত (Pigeon Neck Paralysis)

“হে ঈমানদার গন! তোমরা পরিপূর্ণভাবে ইসলামের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাও এবং শয়তানের পদাংক অনুসরণ কর না।নিশ্চিত রূপে সে তোমাদের প্রকাশ্য শত্রু।“( (সূরা আল বাক্বারাহ:আয়াত-২০৮) ভারতে বলিউড এ এক জনপ্রিয় মুসলিম নামধারী নায়ক এক সাক্ষাৎকার এ বলেছিল যে, সে নাকি তিরপতি মন্দিরে সপ্তাহে একদিন না গেলে সেখানে পুজা না দিলে তার ভাল লাগে না। আর সেখানে সে মানত করে অনেক মনোবাঞ্ছা পুরন হয়েছে। একথা শুনার পর ভারতের দিল্লি মসজিদের খতিব তাকে এই উপদেশ দিয়েছিলেন যে, সে যেন আবার কালেমা পড়ে নেয়। এ কথাতে সারা ভারতের মোডারেট মুসলিম দের মধ্যে সেই খতিব সাহেবের বিরুদ্ধে সমালচনার ঝড় বয়ে গেছিল। কে বলেছে এ সব কথা, উনি কি সব জানে নাকি? উনি একজন ভণ্ড (নাউজুবিল্লাহ), উনি কিছু না জেনেই এ কথা বলেছেন। ফতোয়া দেবার উনি কে? ইত্যাদি ইত্যাদি। আমাদের দেশেও এই ধরনের মোডারেট মুসলিম দের সংখ্যা নিয়াতই কম না, কিছুদিন আগে পহেলা বৈশাখ নিয়ে সামাজিক সাইট গুলোতে এ নিয়ে অনেক পক্ষে বিপক্ষে অনেক লিখালেখি হয়েছিল। যে মূর্তি পুজা মাথাই করে নাচানাচি করা, বটগাছ পুজা করা ইত্যাদি কি ধরনের বর্ষবরণ তা আমাদের জানা নাই। আমিও এ রকম একটা পোস্ট দিয়েছি…
Read more
  • 0

কবুতরের জ্বর Fever of Pigeon

“মানুষ যেভাবে কল্যাণ কামনা করে, সেভাবেই অকল্যাণ কামনা করে। মানুষ তো খুবই দ্রুততা প্রিয়।“ (সূরা বনী ইসরাঈল:আয়াত-১১) তুষার ভাই একজন কবুতর খামারি, তিনি অন্য খামারির মত একটু বেশী বুঝে থাকেন। একদিন আমাকে জানালেন যে তার কবুতরের অবস্থা খারাপ কেন? তিনি জানালেন যে তার কবুতরের জ্বর Fever of Pigeon হয়েছিল। আর তার ঔষধ হিসাবে তিনি প্যারাসিটামল খাওয়ায় দিয়েছেন। ফলে কবুতর এখন বমি করছে আর লোম ফুলিয়ে বসে আছে। এখন কি করা যায়। আমি তাকে জিজ্ঞাস করলাম তার যে জ্বর হয়েছে আপনি কিভাবে বুঝলেন? তিনি আত্মবিশ্বাসের সাথে বললেন যে, গায়ে তাপ অনেক বেশি কত বেশী এই ধরেন ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট এর ও বেশী। যাইহোক, যদিও সেটা তিনি না মেপেই আন্দাজের উপর বলেছিলেন। উনার মত আমাদের দেশে ৯৫% খামারির কবুতরের জ্বর সম্পর্কে সঠিক ধারনা নাই। আর এক্ষেত্রে প্যারাসিটামল খারাপ ভুমিকা পালন করে থাকে। এটি কিডনি ও লিভারের প্রভূত ক্ষতি সাধন করে, সকল জীবন্ত প্রাণীদের জন্য, যদিও আমাদের ক্ষেত্রে এটা জ্বরের প্রাথমিক ঔষধ হিসাবে প্রচুর ব্যাবহৃত হতে দেখা যায়। কিন্তু এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে আমাদের কমই ধারনা আছে। (more…)
Read more
  • 0

কবুতরের কান ও চোখের সংক্রমণ (Pigeon Ear and eye Infection)

“অতএব, আপনি মৃতদেরকে শোনাতে পারবেন না এবং বধিরকেও আহবান শোনাতে পারবেন না, যখন তারা পৃষ্ঠ প্রদর্শন করে।“ (সূরা আর-রূমঃআয়াত-৫২) আমার জন্ম স্থান রাজশাহী পদ্মা নদীর তিরে অবস্থিত, শীত ও গ্রীষ্মে যেমন ঠাণ্ডা অপর দিকে বর্ষা ও বানের সময় সেই প্রম্মত্তা পদ্মার রূপ দেখে ভয় লাগে। এ সময় পদ্মার কূল কিনারা থাকে না। প্রচণ্ড বাতাস আর ঢেউ থাকে। এই সময় আমরা নৌকা চালান তো দূরে থাক গোসল করতেও নামতাম না নদীতে, তখন বাসার কাছে পুকুরে গোসল সেরে নিতাম। আজ থেকে ৩০ বছর আগে এমন এক সময় বিকেলের দিকে চার জন অতি উৎসাহী তরুন ঘাটে বাধা মাছ ধরার জন্য ছোট নৌকা দড়ি খুলে ভ্রমনের উদ্দেশ্যে চড়ে বসল। পারে বসে থাকা কিছু মুরুব্বি তাদের বারন করার ব্যর্থ চেষ্টা করল। বলে রাখা ভাল বিকেলে জেলেরা এইসব নৌকা গুলোর পাটাতনের উপর বাঁশের যে মাচা থাকে ও বৈঠা নিয়ে যায় যাতে কেউ নৌকা নিয়ে যেতে না পারে বা কোন দুষ্ট ছেলেরা কিছু করতে না পারে। যাই হোক সেদিন সেই ছেলে গুলো নৌকা নিয়ে লাফা লাফি করতে করতে সেই প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে মাঝ নদীতে গিয়ে ক্যাসেট ছেড়ে নাচানাচি করা শুরু করল। তাদের মধ্যে ১ জন সাতার জানত বাকী গুলো তেমন জানত না। কিন্তু …
Read more
  • 0

কবুতরের অন্ত্রবৃদ্ধি (Pigeon Hernia) রোগ এবং প্রতিকার

কবুতরের অন্ত্রবৃদ্ধি (Pigeon Hernia) রোগ এবং প্রতিকার

“যারা মনোনিবেশ সহকারে কথা শুনে, অতঃপর যা উত্তম, তার অনুসরণ করে। তাদেরকেই আল্লাহ সৎপথ প্রদর্শন করেন এবং তারাই বুদ্ধিমান।“(সূরা আল যুমারঃআয়াত-১৮)

সুমন ভাই একজন বড় খামারি, তিনি ২৫ বছর ধরে কবুতর পালন করেন তার নিজের বাসাতেই। সামাজিক সাইট গুলোতে তার তেমন আনাগুনা নাই। তাই আজকাল অন্য খামারিদের মত তার হাক ডাকও নাই। তিনি কবুতর শখে পালেন, আর যেহেতু তিনি সব সময় ব্যাবসা ও চাকরি ক্ষেত্রে অনেক সময় ব্যয় করতে হয়। তাই তার এই শখের প্রাণীটির ব্যাপারে একটু কম সময় ব্যয় করতে পারেন, আর এজন্য দুঃখজনক হলেও সত্যি যে তিনি কবুতরের রোগ বালাই সম্পর্কে তেমন কিছুই জানেন না। তাই কেউ যখন তাকে কোন চিকিৎসা ব্যাবস্থা বলেন বা কোন ভেটেনারি ডাক্তারের শরানাপন্ন হন তখন তিনি সেক্ষেত্রে তার সাধারন জ্ঞান প্রয়োগ করার প্রয়োজন মনে করেন না এমনকি কেউ তাকে ৫টি অ্যান্টিবায়টিক একসাথে প্রয়োগ করতে বললেও তা করতে তিনি দ্বিধাবোধ করেন না। ফলে তার খামারে নানা সমস্যা সব সময়ই লেগেই থাকে। তার সাথে আমার ব্যবসায়িক ও ব্যক্তিগত সম্পর্ক অনেকদিনের, যেহেতু কবুতর সেক্টরে তিনি এ…

Read more
  • 0

কবুতর এর গ্রীষ্মকালীন খাবারের ছক

কবুতর এর গ্রীষ্মকালীন খাবারের ছক   “তুমি বল, আমি আমার নিজের ক্ষতি কিংবা লাভেরও মালিক নই, কিন্তু আল্লাহ যা ইচ্ছা করেন। প্রত্যেক সম্প্রদায়ের জন্যই একেকটি ওয়াদা রয়েছে, যখন তাদের সে ওয়াদা এসে পৌঁছে যাবে, তখন না একদন্ড পেছনে সরতে পারবে, না সামনে ফসকাতে পারবে।“(সূরা ইউনুস:আয়াত-৪৯) একবার এক কাকের মনে দুঃখ আসল যে, সে দেখতে সুন্দর না তাই সে খুজতে লাগল তার থেকে সুন্দর কে? দেখল একটা সাদা রাজ হাঁস তাকে দেখে সে মুগ্ধ হয়ে গেল এত সুন্দর ! তাকে সে জিজ্ঞাস করল ভাই তুমি এত সুন্দর কিভাবে? রাজহাঁস জবাব দিল ভাই আমিও তোমারি মতই নিজেকে সুন্দর ভাবতাম! যতদিন না সবুজ লাল টিয়াপাখিকে দেখলাম! টিয়ার সৌন্দর্যের কাছে আমার সৌন্দর্য কিছুই না! কাঁক এ কথা শুনে টিয়ার কাছে গেল তার সৌন্দর্য দেখতে। (more…)
Read more
  • 2

প্রতিপালক কবুতর (Pigeon Fostering)

কিছুদিন আগে একটা ব্যাপার নিয়ে এক গ্রুপ এ বেশ তর্ক হচ্ছিল যে fostering or frostering  কোনটা সঠিক। অনেকে frostering শব্দটা ব্যবহার করতে বেশি সাছন্দ বোধ করছিলেন কারন frost মানে যেহেতু জমা আর ডিম জমানোর জন্য যেহেতু এটা করা হয় তাই । কিন্তু কবুতরের জন্য frostering ব্যবহার করা হয়ই না, এটার আসল শব্দ pigeon fostering এর আভিধানিক অর্থ কবুতর প্রতিপালক। যে প্রতিপালন করে। সাধারণত fostering কেন করা হয় এবং কোন জাতের কবুতর fostering এর জন্য ভাল? কিছু কবুতর তাদের ডিম পাড়ার  পর তা/অম দেয় না এই ধরনের কবুতরের ডিম অন্য কবুতরের কাছে চেলে দিতে হয়। যদি তা না করা হয়ই তাহলে ডিম নষ্ট হবার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই ডিম চেলে দেয়া ভাল, বা কোন কবুতর একটা সময় পর তার বাচ্চা কে খওয়াই না, এই ধরনের পরিতাক্ত বাচ্চা কে পালন করার জন্য fostering করা হয়। fostering জোড়া সেই কবুতর হতে হয় যারা ভাল খাওয়া তে পারে ও শারীরিক ভাবে সবল বা foster সাধারণত সেই সব কবুতর নির্বাচন করা উচিৎ যে গুলো ভাল মারকিং না, বা বাজারে এর বাচ্চা ভাল দাম পাওয়া যাবে না এই রকম কবুতর । ডিম চালা ও fostering এর ক্ষেত্রে কিছু পাবারে খেয়াল রাখতে হবেঃ …
Read more
  • 0

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি)

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি) “যে দেশে গুণের সমাদর নেই সে দেশে গুণী জন্মাতে পারে না” - ডঃ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ। ওলী মনসুর হাল্লাজ (রহ:) একজন মুসলিম সাধক ছিলেন। তিনি ৮০ বছর বয়সে আল্লাহ্‌র ধ্যানে মসগুল হন। বেশ কিছুদিন পর তিনি হঠাৎ নিজেকে 'আনাল হক' বলে দাবী করে উঠলেন। মানে 'আমিই খোদা'। আর এ ধরনের কথা ইসলামে নিষিদ্ধ ও কুফরের অন্তভুক্ত। এই অভিযোগের অপরাধে তার মৃত্যুদণ্ডের রায় হলে তাকে প্রথমে দোররা মারা হল, কিন্তু তাতে তার মৃত্যু হয় না। এবার তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যু কার্যকর করার আদেশ হল। তাকে যখন ফাঁসিতে ঝুলানর জন্য নেয়া হল। তখন কোনমতেই তার মৃত্যু হল না। ফলে তাকে এনে টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলা হল কিন্তু তার শরীরের প্রতিটি কনা ‘আনাল হক’ জিকির করতে লাগল। ফলে তেল ঢেলে তাতে আগুন দিয়া হল। কিন্তু তাতেও কাজ হল না। আগুনে পুড়ানো প্রতিটি কয়লা একই ভাবে জিকির করতে লাগল। এবার সেই কয়লা গুলো টাইগ্রিস নদীতে ফেলে দিলে ঘটল বিপত্তি। নদী ভীষণ ভাবে ফুলে বাগদাদ নগরির দিকে ধেয়ে আসতে লাগল। এটা দেখে তার এক শিস্য ওলী মনসুর হাল্লাজ (রহ:) একটি জামা এনে নদীতে ফেলে দিলে নদী শান্ত হয়। এরপর অভিযোগকারী বুঝতে …
Read more
  • 0

আমরা কি ধরনের খামারি ? (কবুতরের কেস স্টাডি)

আমাদের দেশে উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে যে ধরনের হ জ ব র ল শিক্ষা ব্যাবস্থা, আমার মনে হয় দেশের ৯০% শিক্ষার্থীর এই সময়টা খুব একটা সুখকর ভাবে কাটে না। আমি স্কুল জীবনে খুব একটা ভাল মানের ছাত্র ছিলাম না কিন্তু সব সময়ই প্রথম বেঞ্চিতে বসতাম, আমার স্কুলে পৌঁছাতে দেরি হলেও আমার জন্য সেই জায়গাটা বরাদ্দ থাকত। প্রথম বা দ্বিতীয় ক্যাপ্টেন আমার জন্য সেই জায়গাটা রেখে দিত। যাই হোক, আমাদের প্রধান শ্রেণী শিক্ষক আমাদের, অংক, ইংরেজি, গ্রামার ও বিজ্ঞান ক্লাস নিতেন। প্রতিদিন ১০ টা অংক, ১ টা প্যারাগ্রাফ, ১০ টা অনুবাদ, ছাড়াও বিজ্ঞানের কোন না কোন বাসার কাজ দিতেন। সমাজ বিজ্ঞান শিক্ষক তো আরেক খাড়া উপরে তিনি প্রতিদিন ২ পাতা করে সমাজ বিজ্ঞান এর সেই কঠিন পড়া মুখস্থ করতে দিতেন আর পরদিন সেগুলো দাড়িয়ে তার সামনে বলতে হত না দেখে তিনি সামনে এমন ভাবে ছড়ি ঘুরাতেন যে জানা পড়াও অনেক সময় ভুলে যেতাম, বা যারা ভাল ছাত্র ছিল তারাও পর্যন্ত তার হাত থেকে রেহাই পেত না যদি না সে উনার কাছে প্রাইভেট পড়ত। এর পর ইসলামিয়াত শিক্ষক বিভিন্ন সুরার শানে নযুল ও সূরা গুলো মুখস্থ করতে হত। (more…)
Read more
  • 0

সৌখিনতার নামে কি হচ্ছে? এর কি কোনই প্রতিকার নেই?? কিভাবে? (কবুতরের কেস স্টাডি)

“বস্তুতঃ আল্লাহ হচ্ছেন সর্বোত্তম কুশলী।“ (সূরা আল ইমরানঃআয়াত-৫৪) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দাদা একবার শিপিং ব্যাবসায় শুরু করেন, এতে সমস্থ বাঙ্গালীরা খুশি হই ও তার জাহাজে উঠার জন্য পারাপারি লেগে যাই। এতে ইংরেজদের শিপিং ব্যাবসা লাটে উঠার মত উপক্রম হয়। তারা নানা চিন্তা ভাবনা শুরু করে, এক পর্যায়ে তারা ব্রিটিশ পায়তারা শুরু করে। তারা রবী ঠাকুরের দাদার জাহাজি ভাড়ার থেকেও অর্ধেক ভাড়াতে যাত্রী পারাপার শুরু করলে। রবী ঠাকুরের দাদা চরম আর্থিক সংকটে পড়েন ও এক পর্যায়ে, ব্যাবসার তল্পিতল্পা গুটাতে বাধ্য হন। এবার ইংরেজরা তাদের ঘাটতি পূষানোর জন্য উঠেপড়ে লাগল, যে লোকসান তারা দিয়েছিল তা, দ্বিগুণ ভাড়া বাড়িয়ে টাকা উঠাতে শুরু করল। আর নিরীহ যাত্রীদের আর কোন উপাই না থাকাই তারা এই অন্যায় কে সহ্য করে চলতে লাগল। এটা ত ছিল এক ঘটনা বিছিন্ন অতীতের এক ঘটনা মাত্র, এই ধরনের ঘটনা আমাদের জীবনে অহরহ ঘটছে কিন্তু আমাদের যেহেতু মজ্জা গত অভ্যাস অতীত থেকে আমরা শিক্ষা গ্রহন করি না। করার ইচ্ছা বা মন মানসিকতাও নাই। থাকবে কিভাবে আমরা চিন্তা করি আপনা বাচলে বাপের নাম। অন্যের কি হল তাতে আমার কি আসে যায়। কিন্তু আল্লাহ্‌ বলেন…
Read more
  • 7