Welcome, visitor! [ Register | Login

সৌখিনতার নামে কি হচ্ছে? এর কি কোনই প্রতিকার নেই?? কিভাবে? (কবুতরের কেস স্টাডি)

Pigeon Discussion, Pigeon Diseases & treatment December 17, 2014

“বস্তুতঃ আল্লাহ হচ্ছেন সর্বোত্তম কুশলী।“ (সূরা আল ইমরানঃআয়াত-৫৪)

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দাদা একবার শিপিং ব্যাবসায় শুরু করেন, এতে সমস্থ বাঙ্গালীরা খুশি হই ও তার জাহাজে উঠার জন্য পারাপারি লেগে যাই। এতে ইংরেজদের শিপিং ব্যাবসা লাটে উঠার মত উপক্রম হয়। তারা নানা চিন্তা ভাবনা শুরু করে, এক পর্যায়ে তারা ব্রিটিশ পায়তারা শুরু করে। তারা রবী ঠাকুরের দাদার জাহাজি ভাড়ার থেকেও অর্ধেক ভাড়াতে যাত্রী পারাপার শুরু করলে। রবী ঠাকুরের দাদা চরম আর্থিক সংকটে পড়েন ও এক পর্যায়ে, ব্যাবসার তল্পিতল্পা গুটাতে বাধ্য হন। এবার ইংরেজরা তাদের ঘাটতি পূষানোর জন্য উঠেপড়ে লাগল, যে লোকসান তারা দিয়েছিল তা, দ্বিগুণ ভাড়া বাড়িয়ে টাকা উঠাতে শুরু করল। আর নিরীহ যাত্রীদের আর কোন উপাই না থাকাই তারা এই অন্যায় কে সহ্য করে চলতে লাগল। এটা ত ছিল এক ঘটনা বিছিন্ন অতীতের এক ঘটনা মাত্র, এই ধরনের ঘটনা আমাদের জীবনে অহরহ ঘটছে কিন্তু আমাদের যেহেতু মজ্জা গত অভ্যাস অতীত থেকে আমরা শিক্ষা গ্রহন করি না। করার ইচ্ছা বা মন মানসিকতাও নাই। থাকবে কিভাবে আমরা চিন্তা করি আপনা বাচলে বাপের নাম। অন্যের কি হল তাতে আমার কি আসে যায়।

কিন্তু আল্লাহ্‌ বলেন,“হে বুদ্ধিমানগণ! কেসাসের মধ্যে তোমাদের জন্যে জীবন রয়েছে, যাতে তোমরা সাবধান হতে পার।“(সূরা আল বাক্বারাহঃআয়াত-১৭৯)

তারপরও আমরা সাবধান হইনা ব্যাবসা হোক আর অন্য যে কোনো কিছুই ক্ষেত্রেই হোক। আমরা সবাই এক, এজন্য হয়ত মনিষীরা বলেছেন, “যখন প্রশ্নটা টাকা-পয়সার তখন সবারই একই ধর্ম।“ -ভলটেয়ার।

প্রথমত, বাংলাদেশে যে পরিমান কবুতর আমদানি করা হয় তা বিশ্বের আর কোন দেশে এত পরিমান কবুতর আমদানি কর হয় না। এমনকি আমাদের পার্শ্ববর্তি দেশ তারাও না। তাহলে আমরা কেন এত কবুতর আনতে উৎসাহিত হচ্ছি।

“অর্থ মানুষকে পিশাচ করে তোলে, আবার অর্থ মানুষকে মহৎ করে তোলে।“ -ক্যাম্বেল।

দ্বিতীয়ত, নিন্ম মানের কবুতর আমদানি করা যা এক মহা বিস্মই, এমনকি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কোন প্রকার লাইভ স্টক অর্থাৎ প্রাণী আমদানি করা হলে সেটার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য এক বিশেষ টিম থাকে, অসুস্থ তো দূরের কথা কোন প্রাণীর প্রতি কোন প্রকার সন্দেহ হলেই সেটাকে আর দেশে প্রবেশের অনুমতি দিয়া হয় না। নিউজিল্যান্ডে প্রাণীদের স্বাস্থ্য রক্ষা কল্পে কোন টুরিস্ট কে বা সেই দেশে আগমন কারী কে পুরানো জুতা পর্যন্ত নিতে দেয়া হয় না। যাতে সে দেশে রোগ জীবাণু প্রবেশ করতে না পারে। কিন্তু সব সম্ভবের দেশ আমাদের দেশে সব কিছুই সম্ভব হয়। আর সম্ভব হয় বলেই তার রেস বয়ে বেড়াতে হয় নিরীহ খামারিদের। কেন এই সব আমদানি কারকরা এই ধরনের নিন্ম মানের কবুতর আমদানি করে? কারণ তারা জানে আমরা হলাম ছাগল যা দিবে তাই খাবে। যদি কোন খামারির কাছে কোন কবুতর কিনতে যাই তাহলে, এটা সুস্থ কিনা? ডিম বাচ্চা করে কিনা? কবে জন্ম? কোন সমস্যা আছে কিনা? ফাটা কিনা? আই লোম সাদা কেন? এই পড়টা এই রকম কুচকান কেন? ভ্যাকসিন করা কিনা ? ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর দিতে দিতে যান বের হবার উপক্রম হয়ে যায়, এর পর বাসাই এসে সেটাকে এমন ভাবে পরীক্ষা করা হয় যেন মনে হই ওর নারী ভূরি বের করে পরীক্ষা করতে পারলেই ভাল হত। অথচ আমদানি কারকদের কাছ থেকে নিবার সময় ফাটা অসুস্থ শুকনা, যান যায় যায় অবস্থা এই রকম কবুতর পেলেই যেন যুদ্ধ জয়ের মত খুশি হয়ে যায় মানুষ, কিছুই যায় আসে না। সেই কবুতরটা খামারে নিবার পর যদি মারাও যায় তাও কোন সমস্যা হয়না এই ধরনের খামারিদের। আর কবুতর নিবার জন্য যেরূপ হাহাকার শুরু হয় খামারিদের মধ্যে সে এক আশ্চর্য ব্যাপার। আর এরই সুযোগ ১০০% ভাগ গ্রহন করেন আমদানি কারকরা, আজ আমরা সবাই আমদানি কারক এর সংখ্যা বাড়তেছে দিনকে দিন…! শোনা যাই গত ১ মাসে বাংলাদেশে ২০০০ কবুতর এসেছে, আর আগামি ১ মাসে আরও ১৫০০ মত আসতেছে। তাহলে আগের গুলো কি হবে?

বিশিষ্ট ছাহাবী ওয়াসিলা ইবনুল আকওয়া (রাঃ) বলেন, “রাসূলুল্লাহ (সাঃ) আমাদের কাছে আসতেন এবং বলতেন, হে বণিক দল! তোমরা মিথ্যা কথা ও মিথ্যা কারবার থেকে অবশ্যই দূরে থাকবে”।

তৃতীয়ত, আমরা যারা খামারি আছি তারা আজ যে কবুতর ১ লক্ষ্য টাকাই কেনা হচ্ছে, ১ মাস পর তার দাম ৭০ হাজার টাকা, কিন্তু যারা ১ মাস আগেই এই কবুতর গুলো নিয়েছিলেন তারা এখনও ডিম বাচ্চা করতে পারেন নাই। তার আরও ১ মাস পর এর দাম ৫০ হাজার টাকা, এর মধ্যে হইত কিছু খামারি ভাগ্য ক্রমে ১-২ জোড়া বাচ্চা তুলেছেন। তাহলে এখন তারা সেই দামে কেনা বাচ্চা কত করে বিক্রি করবেন। নিশ্চয় ৫০ হাজার করে? কিন্তু যেহেতু তখন ৫০ করে আমদানি করা পূর্ণ বয়স্ক কবুতর পাওয়া যাই তাহলে কেন তারা ২য় ব্লাড লাইনের কবুতর নিবেন? এরই ১ মাস পর ষেই কবুতরের দাম ৩০ হাজার টাকা। এখন আপনি কততে আপনার খামারের বাচ্চা বিক্রি করবেন?

“অসুস্থতা ঘোড়ায় চড়ে আসে কিন্তু যায় পায়ে হেঁটে।“ -ডোনাল্ড জি মিচেল।

চতুর্থত, ইংরেজদের একটা পলিসি ছিল ডিভাইডিং অর্থাৎ কারো সাথে কারো যাতে মিল না থাকে। আমাদের কবুতর সেক্টরে ঠিক তেমন তাদের ব্যাক্তিগত স্বার্থ উদ্ধার এর জন্য কেউ যেন এই রুলের আবিষ্কারক । যদিও এটা আমাদের জানা জরুরি না কে সে, কিন্তু সেটা আমাদের চিন্তার বিষয়। আজ আমরা আমাদের নীতি বিবর্জিত হয়ে কবুতর বিক্রি করি। আজ নতুন খামারিদেরকে উৎসাহিত করার কোন পরিকল্পনা নাই। মাঝে মাঝে কিছু উদ্যোগ নিবার প্রচেষ্টা করা হয় মাত্র কিন্তু সেটা বাস্তবায়ন হয়না কেন যেন কি অদৃশ্য কারনে…! আজ আমরা যার যার তার তার পলিসি অনুসরন করি…! আমরা নিজেদের দাবি করি কবুতর প্রেমী কিন্তু এই কবুতরের জন্য তেমন কিছুই করি না। বরং এটা কিভাবে ধ্বংস তারই পায়তারা করতেছি। এর কারণ কি?

“সব লোকের ঘাড়েই মাথা আছে, কিন্তু মস্তিষ্ক আছে কিনা সেটাই প্রশ্ন। “ -জুভেনাল

পঞ্চমত, আমাদের দেশে যে ধরনের জলবায়ু ও আবহাওয়া তাতে কবুতরে সয়লাব হয়ে যাবার কথা ছিল। কিন্তু যেমন ভাবে এদেশে কবুতর এসেছে বা আসছে ঠিক তেমন ভাবে এই সেক্টর তা উন্নত হয়নি। কারণ আমরা এই প্রাণীটির প্রধান শত্রু। আমাদের মধ্যে কামড়া কামড়ি আমাদের এই খাতে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে। আমাদের খামারিদের আরেকটি অন্যতম প্রধান শত্রু কবুতরের রোগ ব্যাধি, তার থেকেও বড় শত্রু এদেশের পশু ডাক্তার আর না জানা কিছু স্ব উদ্যোগীর উল্টাপাল্টা চিকিৎসা আর ৩-৪ পদের অ্যান্টিবায়টিক প্রয়োগ, রোগ না জেনে ঔষধ উপদেশ, হাঁস মুরগির ভ্যাকসিন অপব্যাবহার যদিও জানে তারপরও কেন যেন এক হ্যামিলনের বাঁশির সুরেই হোক অসাধু চক্রের টানেই হোক বা মানুষিক প্রশান্তির কারনেই হোক এই ভ্যাকসিন দেন। জিজ্ঞাস করলে বলেন ভাই আমি তো নতুন, যেন একথাই সকল সমস্যার সমাধান আর এটা বললেই বোধ হয় সব দায়িত্ব বোধ থেকে নিস্তার পাওয়া যাবে…! ধরুন আপনি একটা নতুন জায়গায় গেছেন সেখানে আপনি কিছু চিনেন না বা কাউকেই জানেন না আপনি কাউকে জিজ্ঞাস করলেন ভাই এই ঠিকানা তা কোথায় সে আপনাকে ঠিকানা বলে দিল আপনি জানেন না সে সঠিক ঠিকানা দিল না ভুল যদি আপনাকে সে ভুল ঠিকানা দেয় তাহলে আপনি আপনার গন্তব্য পাবেন না। কিন্তু সে যদি আপনাকে আপনাকে সঠিক ঠিকানা বলে আর আপনি আপনার গন্তব্যের ঠিকানায় না গিয়ে সারাদিন ঘুরে বেরালেন আর আপনি বললেন ভাই আমি তো নতুন তাহলে কিন্তু আপনি সঠিক কাজটি করেননি। আর কবুতরের ক্ষেত্রে যদি আপনি সেই একই কাজটি করেন তাহলে আপনাকে দুই হাত জোড় করে বলছি ভাই আপনার কবুতর পালার দরকার নাই। সুধু ফুটানি মারার জন্য বা ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য হাসিল করার জন্য আপনি কখনও কবুতর পালার চেষ্টা করবেন না। কারণ আজ আপনাদের মত পালকদের কারনে এই সেক্টরের করুন অবস্থা। আর যারা এই অনিয়ম দেখেও চুপ থাকে তারাও একই অপরাধে অপরাধি হতে হবে। এ ব্যাপারে বিন্দুমাত্র সন্দেহ নাই।

“এই পৃথিবী কখনো খারাপ মানুষের খারাপ কর্মের জন্য ধ্বংস হবে না , যারা খারাপ মানুষের খারাপ কর্ম দেখেও কিছু করেনা তাদের জন্যই পৃথিবী ধ্বংস হবে”-আইনস্টাইন।

আল্লাহ্‌ বলেন, “তোমরা কি মানুষকে সৎকর্মের নির্দেশ দাও এবং নিজেরা নিজেদেরকে ভূলে যাও, অথচ তোমরা কিতাব পাঠ কর? তবুও কি তোমরা চিন্তা কর না?”(সূরা আল বাক্বারাহঃআয়াত-৪৪)

আমরা খালি সমস্যাই দেখি সমাধানের পথ খুজি না। কিভাবে এই অশুভ পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। কিভাবে কবুতরের আগের অবস্থা ফিরিয়ে আনা যায়। কি করলে আমরা আবার বলতে পারব ভাই আমি একজন সত্যিকার কবুতর প্রেমি…!

১) ভাল মানের কবুতর কিনুন, সেটা আমদানি করা হোক বা লোকাল ব্রীড হোক বা দ্বিতীয় জেনারেশনের ব্লাড হোক। সেটা অবশ্যই হতে হবে ভাল মানের কবুতর বিশ্বে যার সুনাম আছে, যেগুলো দিয়ে নিয়মিত প্রতিযোগিতা হয়, প্রদশনি হয়। কোন প্রকার ক্রস ব্রীড না। আজ আমাদের দেশে ভাল মানের কবুতরের থেকে ক্রস ব্রীড কদর বেশী।

২) যদি কোন ব্রীড অতিরিক্ত দাম উঠে যায় সেগুলো আপাতত না কেনা। অন্য ব্রীড এর প্রতি নজর দিয়া।

৩) প্রতিযোগিতা মুলক ভাবে কবুতর না কেনা বা ব্যাবসায়িক লক্ষে কবুতরের পিছনে না ছুটে বেরান।

৪) নতুন খামারিদেরকে সঠিক ভাবে গাইড করা। প্রয়োজনে তাদের নানা ভাবে উৎসাহিত করা। নতুন খামারি পেলেই তাদের কে শোষণ না করা।

৫) উল্টা পাল্টা ঔষধ ও ভ্যাকসিন প্রয়োগের আগে একবার ঠাণ্ডা মাথাই চিন্তা করা।

৬) কার কাছে ভাল কবুতর পাওয়া যাবে বা যে কবুতরটা সেই খামারি খুজতেছে সেটার সন্ধান যদি জানা থাকে তাহলে সেটা সেই খামারি কে জানান।

৭) নিয়মিত একে অপরের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা। যাতে খামারিদের মধ্যে সম্পর্ক জরদার হয়।

৮) যদি কোন কবুতর বা খামার কোন রোগে আক্রান্ত হয় আর আপনি যদি সে সম্পর্কে সঠিক ধারনা না থাকে, তাহলে যিনি জানেন তার সরনাপন্য হবার পরামর্শ দিয়া। একথা জেনেও না বলা হয় এই ঔষধ ষেই ঔষধ ব্যাবহার করেন, বা আমি এই ঔষধের উপকার পেয়েছে আপনিও এই ঔষধ ব্যাবহার করেন। কারন আপনার কবুতরের রোগের সঙ্গে ষেই ব্যাক্তির রোগের সম্পর্ক নাও থাকতে পারে বা ধরন একই নাও হতে পারে।

৯) কার সম্পর্কে যদি জানেন তাহলে বলেন ভাই উনি ভাল আমি চিনি, যদি লোকের কথা শুনে বলেন সে খারাপ লোক তাহলে সমালোচনা ও অপবাদের গুনার ভাগি হয়ে যাবেন। তাই কারো সমালোচনা করার আগে একবার চিন্তা করবেন অনুগ্রহ করে। একে অপরের কথা লাগান বন্ধ করা ইত্যাদি।

১০) আমরা যারা কবুতর ভালবাসি তারা সবাই একই পরিবারের মত, এই প্রাণীটিকে ভালবাসার কারনে আমাদের সবাইকে একই জায়গায় একত্রিত করেছে। তাই সবার সঙ্গে যোগাযোগ টা খুবই জরুরি। আর এই লক্ষে আজ আপানারা যদি সবাই কে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে আমার বিশ্বাস এই সেক্টর টা আবার আগের মত আল ঝলমলে হয়ে উঠবে।

এছাড়াও গ্রুপ গত ভাবে ভ্যাক্সিনেশন প্রগ্রাম, এক্সিবিশন এর ব্যাবস্থা করা, ভাল খামারি কে পুরুস্কার ব্যাবস্থা প্রবতন ইত্যাদি। এরই লক্ষে খুব শীঘ্রই কিছু কার্যক্রম হাতে নিয়া হয়েছে অচিরেই এর খবর যথা সময়ে জানান হবে।

আমার এই লেখা বা উদ্যোগ যদি ভাল লাগে আর আমার সাথে যদি একমত হন। তাহলে আগিয়ে আসুন সবাই এক সাথে, দেখি না একবার শেষ চেষ্টা করে। এই সেক্টরের কতটুকু উন্নত করা যায়। আমাদের সবারই প[অরচয় কল্পে এই পোস্টের মন্তব্যে কোন প্রকার প্রশংসা মুলক কথা বা ধন্যবাদ না দিয়ে আসুন আমরা আমাদের ১) নাম ২) ফোন নাম্বার ৩) এলাকার নাম ৪) জেলার নাম উল্লেখ করি। পরবর্তীতে এগুলো একটা ফাইলে একযোগ করে ফোন ডাইরেক্টরি হিসাবে আপনাদের সেবাই কে পেশ করা হবে। যারা গাইড চান তারা সহজেই খামার সম্পর্কে গাইড পেয়ে যাবেন। একজন একজনকে ফোন করে। কোন কিছু জানতে চান তারা সহজে জেনে যাবেন, একজনকে কল করে। আর এতে সবাই সবার সঙ্গে একটা সম্পর্ক তৈরি হবে বলে আশা রাখি। আল্লাহ্‌ আমাদের সকলের সহায় হন। আমীন।

“শয়তান তোমাদেরকে অভাব অনটনের ভীতি প্রদর্শন করে এবং অশ্লীলতার আদেশ দেয়। পক্ষান্তরে আল্লাহ তোমাদেরকে নিজের পক্ষ থেকে ক্ষমা ও বেশী অনুগ্রহের ওয়াদা করেন। আল্লাহ প্রাচুর্যময়, সুবিজ্ঞ। (সূরা আল বাক্বারাহঃআয়াত-২৬৮)

লেখক : সোহেল রাবি ভাই

3628 total views, 1 today

  

Sponsored Links

7 Responses to “সৌখিনতার নামে কি হচ্ছে? এর কি কোনই প্রতিকার নেই?? কিভাবে? (কবুতরের কেস স্টাডি)”

  1. Md. Mahfuzur Rahman on December 25, 2014 @ 1:05 am

    i’m a newbie to this pigeon farming sector…need some help….my contact no : +8801719323950

  2. আমি অনেক আগে কবুতর পালতাম মাঝখানে ১২ বছর গ্যাপ ছিল। পড়ালেখা, জীবিকা সব কিছু মিলিয়েই মাঝখানের বছরগুলোতে কবুতর পালা হয় নাই। নতুন করে কবুতর পালতে গিয়ে দেখলাম অনেক সমস্যা তৈরী হচ্ছে। যেগুলো এতদিনে অনেকখানি ওভারকাম করেছি। আমি শুধুমাত্র শখে কবুতর পালন করি। বিক্রি করিই না বলতে গেলে।

    নতুন করে কবুতর পালতে এসে কিছু জিনিস অবশ্যই ভালো লেগেছে যেমন: অনেক বেশি শিক্ষিত মানুষদেরকে কবুতর পালতে দেখছি। যখন আমি কবুতর পালতাম তখন শিক্ষিত শ্রেণী কবুতর পালতো না। এবং কবুতর পালনকে খারাপ চোখে দেখত। এই বিষয়টা এখন পুরোপুরি তিরোহিত হয়েছে। আবার কবুতর পানলকারীদের সংখ্যাও অনেক বেড়েছে।

    তবে আরেকটা বিষয় খুবই খারাপ হয়ছে: সেটা হছে কবুতরের দাম। যেমন আগে কবুতরের দাম স্ট্যাবল ছিল কিন্তু এখন এত বেশি উঠানামা করে যে তা কবুতরের খামারীদের জন্য খুবই ভয়ংকর।

  3. Nsme : Tareq Hasan
    Mobile Number : 01811361424
    Chittagong, city.

  4. Hanif Suman Khan on February 10, 2015 @ 3:02 pm

    Phone number: 01626104145.
    Bogra….

  5. M A Manju
    01819-904240
    Baharchara, CoXsbazar sador, Coxsbazar

  6. Engr.tutul on March 13, 2015 @ 2:04 am

    New in that sector. .want to know more about peigeon. .can some one help me ..my number 01683582084..
    I want to collect some good peigeon. ..how can I collect. ..

  7. Zobaerhossen57 on September 6, 2015 @ 12:55 am

    ZOBAER, Savar Dhaka.
    01946657488

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

  • কবুতরের সঠিক ভাবে রোগ নির্ণয় ও ঔষধ প্রয়োগ

    by on November 9, 2013 - 5 Comments

    রসূল (সঃ) বলেন, “একজন মুসলিম যিনি একটি পোষা প্রাণী রাখতে পছন্দ করে তার দায়িত্ব হল ভালমত এর যত্ন নেয়া,যথাযথ খাদ্য, পানি এবং আশ্রয়ের ব্যাপারে খেয়াল করা আবশ্যক। কোন বাক্তি যদি একটি পোষা প্রাণীর যত্নর ব্যাপারে উপেক্ষিত হয় তার কঠিন শাস্তি বর্ণনা করেছেন।” কবুতর পালার কিছু নিয়ম আছে। শুধু পালার খাতিরে পালেন। একজন খামারি ১০০ কবুতর […]

  • Pigeon cage

    সৌখিনদের সৌখিন কবুতর পালন পদ্ধতি

    by on February 13, 2014 - 3 Comments

    সৌখিনদের সৌখিন কবুতর পালন পদ্ধতি নিয়ে কিছু কথা বলব। কবুতর একটা আমন প্রানি যে, এটা মসজিদ, মন্দির, গির্জা, মঠ ছাড়াও গ্রামের ১০০ ঘরের মধ্যে ৬০ ঘরেই কবুতর পালতে দেখা যায়। কবুতরের প্রতি মানুষের যে আকর্ষণ তা অন্য কিছুতে নাই। এটা মানুষের নেশা, পেশা, সখ ও সময় কাটানোর অন্যতম মাধ্যম হিসাবে আজ পরিচিত। কবুতর প্রেমিদের সেই […]

  • কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ?

    by on August 17, 2013 - 1 Comments

    কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ? আমার এক পরিচিত আমাকে একদিন জানালেন যে তার একজোড়া কবুতর ৪ টা ডিম দিয়েছে এবং তিনি নিশ্চিত করে বললেন যে এটা নর আর মাদি, আমি তাকে বুঝানর পরও তিনি তর্ক করলেন, আমি আর কিছু বললাম না, কিছুদিন পর তিনি বুঝতে পারলেন যে আসলে দুটাই মাদি। আসলে এটা উনার […]

  • কবুতরের গুরুত্বপূর্ণ ঔষধ (Pigeon Medicine) দাম ও কার্যকারিতা ।

    by on September 18, 2014 - 1 Comments

    Pigeon Medicine 1) Coccicure: Size 150 grm cntr Price:Tk.3000/- Quantity: 2 cntr Indications: Treatment of coccidiosis in racing pigeons caused by Eimeria spp. Dosage: 1 spoonful per 2 litres drinking water for 6 days. When 20 pigeons drink more than 1litre a day, reduce or raise the dose proportionally. Try to administer enough medicines to […]

  • কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ

    কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ (Internal Parasites)

    by on December 10, 2013 - 2 Comments

    কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ কবুতরের অবস্থার উপর একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। কবুতরের পারামক্সি,সাল্মনিল্লা এর পর সবচে মারাত্মক যে রোগ সেটা হল Internal & External Parasites । আমরা এখানে Internal Parasites বা ক্রিমির ব্যাপারে আলোচনা করব। ক্রিমির কারনে কবুতরের ওজন হ্রাস, খারাপ moult, ডায়রিয়া, এবং ক্লান্তি ছাড়ও আরো উপসর্গ থাকতে পারে। এটি ঋণাত্মক উর্বরতা […]

Bumblefoot Gorguero pouter kobutor pigeon pigeon medicine Pigeon Scabies tonsil Weak Leg Wings Paralysis অবিশ্বাস্য কবুতর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আমার পছন্দের কবুতর এই বর্ষায় সবার জন্য একটি বিশেষ অনুরোধ এলোপ্যাথি(allopathic) কবুতর কবুতর অসুস্থতা কবুতর পালন কবুতরের কবুতরের/পাখির উপর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া কবুতরের / পাখির ডিম আটকানোর (Egg binding ) কারন ও চিকিৎসা কবুতরের একজিমা কবুতরের কাউর কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ কবুতরের গ্রিট কবুতরের চিকিৎসা কবুতরের ডিম কবুতরের ডিম আটকানোর কবুতরের দুর্বল পা কবুতরের পাঁচড়া কবুতরের ভিটামিন কবুতরের রক্ত আমাশয় কবুতরের রিং কবুতরের রোগ কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ? টনসিল ডিম নর কবুতর পক্ষাঘাত পছন্দের কবুতর পাখির পা পাখির পায়ে ক্ষত মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ মাদি কবুতর সংক্রামক করিজা হোমিও (Homeopaths)

ফেসবুক গ্রুপ

 
BD Online Pigeon Market
Facebook এর গোষ্ঠী · ৫ জন সদস্য

গোষ্ঠীতে যোগ দিন

http://pigeon.bdfort.com/
 

Search Here