ভুল সবই ভুল (কবুতরের কেস স্টাডি ষষ্ঠ পর্ব)

ভুল সবই ভুল (কবুতরের কেস স্টাডি ষষ্ঠ পর্ব)

“যেগুলো সম্পর্কে তোমাদের নিষেধ করা হয়েছে যদি তোমরা সেসব বড় গোনাহ গুলো থেকে বেঁচে থাকতে পার। তবে আমি তোমাদের ক্রটি-বিচ্যুতিগুলো ক্ষমা করে দেব এবং সম্মান জনক স্থানে তোমাদের প্রবেশ করাব।“(সূরা আন নিসাঃআয়াত- ৩১)

শুক্রবারের ও ঈদের যে খুদবা শুনা প্রতিটি মুসলিমের জন্য ওয়াজিব। যদিও খুদবা বলতে আমরা আরবি টাকেই প্রাধান্য দেই বেশী। কিন্তু যে জিনিষ আপনি বুঝতে পারছেন না সেটা থেকে, আপনি যেটা বুঝবেন সেটা শুনাই কি ভাল না আমাদের জন্য? আর সেটার জন্য আপনাকে একটু আগেভাগে যেতে হবে মসজিদে যাতে আপনি সেই বাংলা খুদবা টা ঠিকমত শুনতে পারেন। কিন্তু আমাদের দেশে অশিকাংশ মানুষ শেষ মুহূর্তে মসজিদে প্রবেশ করেন, কোনমতে ২ রাকাত ফরজ টা আদায় করতে পারলেই কাজ শেষ, কমপক্ষে নাম টা তো খাতাই থাকল! অনেকে তো আছেন সেই নাম টাও খাতাই রাখার প্রয়োজন মনে করেন না। যাই হোক, আমি একবার এ রকম ঢাকার বাইরে খুদবা শুনছিলাম, হুজুর খুব সুন্দর করে বয়ান করছিলেন..যে, এক লোক নানা পাপ কাজে লিপ্ত ছিল, সে জীবনে ৯৯ টা খুন করেছিল, হটাত তার খেয়াল হল যে, সে তো জীবনে অনেক পাপ করেছে, …

বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতরের কেস স্টাডি ষষ্ঠ পর্ব)
  • 1

কবুতরের রোগ প্রতিরোধ ও বর্ষা কালীন মাসিক ছক (কবুতরের কেস স্টাডি)

কবুতরের রোগ প্রতিরোধ ও বর্ষা কালীন মাসিক ছক (কবুতরের কেস স্টাডি) “আমি যখন রোগে আক্রান্ত হই তখন তিনিই (আল্লাহ) আমাকে রোগমুক্ত করেন।” (সূরা শুআরা : আয়াত ৮০) বুখারী শরীফে বর্ণিত একখানা হাদীসে রাসূলেপাক (সা.) ইরশাদ করেন, “আল্লাহ এমন কোন রোগ প্রেরণ করেন না যার আরোগ্য নেই.” “আমি কোরআনে এমন বিষয় নাযিল করি যা রোগের সুচিকিৎসা এবং মুমিনের জন্য রহমত।“ (সূরা বনী ইসরাঈল ৮২) একবার এক ডাক্তার রুগীকে এক বোতল ঔষধ দিয়ে বললেন প্রতিদিন একদাগ করে খেতে। আর ১ সপ্তাহ পর দেখা করতে। রোগী এক সপ্তাহ পর আবার আসলেন অবস্থা আরও খারাপ...! ডাক্তারের উপর রেগে আগুন কি ডাক্তার সাব কি ঔষধ দিলেন রোগ ভাল হয় না? ডাক্তার রোগীকে জিজ্ঞাস করলেন ঔষধ ঠিকমত খেয়েছিলেন তো? রোগী উত্তর দিল হ আপনি যেভাবে এক দাগ করে খেতে বলছিলেন সেই ভাবেই খাইছি। ডাক্তার বললেন কয় দেখি ফাইল? রোগী বোতল বের করে দেখালেন...। ডাক্তার দেখলেন ঔষধ যেমন ছিল তেমনই আছে...কি ব্যাপার আপনি তো দেখি ঔষধ খান নাই একটুও. রোগী এবার আরও রেগে গেল আপনি কি আমারে ঔষধ কাইতে বলছিলেন নাকি দাগ খাইতে বলছিলেন...আমি তো আপনার কথামত একদাগ করে প্রতিদিন (বোতলের গায়ে যে দা…
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের রোগ প্রতিরোধ ও বর্ষা কালীন মাসিক ছক (কবুতরের কেস স্টাডি)
  • 1

আমরা কি কৃতজ্ঞ ? (কবুতর এর কেস স্টাডি)

“নিশ্চয় মানুষ বড় অকৃতজ্ঞ।“ (সূরা হাজ্জ্বঃ আয়াত-৬৬) এক গ্রামে এক লোক বাস করত। লোকে তাকে নাখোশ বা অকৃতজ্ঞ নামে ডাকত। কারন সে কোনদিন কোনকিছুতেই সন্তুষ্ট হতে পারত না বা কেউ থাকে কোন কাজে খুশি করতে পারত না। কেউ কোনদিন দেখি নাই যে সে কাউকে খুশি মনে একটা ধন্যবাদ দিয়েছে বা তাকে কিছু করার পর একটু হাসিমাখা মুখ দেখেছে। এমন হইছে যে কেউ তাকে কোন উপহার দিয়েছে, সে হয়ত উপহারটা দেখে বলল। হুম, আসলে এটা তেমন ভাল কিন্তু এ রকম আগে আমার অনেক ছিল বা হয়ত কেউ তাকে দাওয়াত দিয়েছে। সে খাওয়াদাওয়ার পর বলল," আসলে, খাবার টা তেমন মজা হয়নি, অমুক অমুক খাবারে লবন একটু কম হয়েছে! আর অমুক অমুক খাবারে ঝাল একটু বেশী হয়েছে।" এ ভাবে দিন যায় বছর যায় কিন্তু একই রকম, শেষে সবাই মিলে ঠিক করল যে তাকে তুষ্ট করার জন্য কি করা যায়। অনেক চিন্তা ভাবনা করে বের করা হল। সবাই মিলে চাঁদা তুলে তাকে বিশাল আয়োজন করে খাওয়ান হবে ও অনেক ভাল ভাল দামি দামি উপহার দিয়া হবে এবার দেখি সে কি বলে? যেমন কথা তেমন কাজ। অনেক আয়োজন করা হল অনেক উপহার কিনা হল, এরপর যথা সময়ে থাকে দাওয়াত ও করা হল। অনেক আইটেম এর খাবার অনেক উপহার সাধারন যে কোন লোক দেখলে অবাক…
বিস্তারিত পড়ুন about আমরা কি কৃতজ্ঞ ? (কবুতর এর কেস স্টাডি)
  • 2

আপনি কি ধৈর্যশীল? তাহলেই খামার করুন। (কবুতরের কেস স্টাডি)

আপনি কি ধৈর্যশীল? তাহলেই খামার করুন। (কবুতরের কেস স্টাডি) ১) আল্লাহ্‌ বলেন,“ আর যারা সবর করে, আল্লাহ তাদেরকে ভালবাসেন। " (সূরা আল ইমরানঃ আয়াত-১৪৬) ২) হাম্মদ ইব্‌ন বাশ্‌শার (রহঃ)…আনাস (রাঃ) সূত্রে নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন," বিপদের প্রথম অবস্থায়েই প্রকৃত সব্‌র। "(সহীহ বুখারি হাদিস নাম্বারঃ ১২২৪) ৩) কুতায়বা (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেনঃ " আল্লাহ তা’আলা ইরশাদ করেন, আমি যখন আমার মুমিন বান্দার কোন প্রিয়তম কিছু দুনিয়া থেকে তুলে নেই আর সে ধৈর্য ধারণ করে! আমার কাছে তার জন্য জান্নাত ব্যতীত অন্য কোন প্রতিদান নেই। " (সহীহ বুখারি হাদিস নাম্বারঃ ৫৯৮১) (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about আপনি কি ধৈর্যশীল? তাহলেই খামার করুন। (কবুতরের কেস স্টাডি)
  • 1

দালাল চক্র (কবুতরের কেস স্টাডি)

ইসহাক (রঃ) আবদুল্লাহ ইবন আবূ আওফা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন,” এক লোক তার মালপত্র বাজারে এনে এবং হলফ করে বলল যে, এগুলো (খরিদ বাবদ) সে এত দিয়েছে, অথচ সে তত দেয়নি। তখন আয়াত নাযিল হলঃ যারা নগণ্য মূল্যের বিনিময়ে আল্লাহর সাথে কৃত ওয়াদা এবং নিজের শপথ বিক্রি করে । ইবন আবূ আওফা (রাঃ) বলেন, (দাম চড়ানোর মতলবে) যে ধোকা দেয়, সে মূলতঃ সুদখোর ও খিয়ানতকারী।” (সহীহ বুখারি হাদিস নাম্বারঃ ২৪৯৭)

আল্লাহ্‌ বলেন, “তারা সে সমস্ত লোক, যারা হেদায়েতের বিনিময়ে গোমরাহী খরিদ করে। বস্তুতঃ তারা তাদের এ ব্যবসায় লাভবান হতে পারেনি এবং তারা হেদায়েতও লাভ করতে পারেনি।” (সূরা আল বাকারাঃআয়াত-১৬)

(বিস্তারিত…)

বিস্তারিত পড়ুন about দালাল চক্র (কবুতরের কেস স্টাডি)
  • 0

সাবধান (কবুতরের কেস স্টাডি)

“যেগুলো সম্পর্কে তোমাদের নিষেধ করা হয়েছে যদি তোমরা সেসব বড় গোনাহ গুলো থেকে বেঁচে থাকতে পার। তবে আমি তোমাদের ক্রটি-বিচ্যুতিগুলো ক্ষমা করে দেব এবং সম্মান জনক স্থানে তোমাদের প্রবেশ করার।" (সূরা আন নিসাঃআয়াত-৩১) মাগুরার লিটন ভাইয়ের একটা ছোট খামার কিছু সখেরবসে কবুতর পালেন। কিছুদিন আগে তিনি ২ জোড়া কবুতরের বিজ্ঞাপন দিলেন, অনেক সাড়া পেলেন। কিন্তু একজন বিশেষ ভাবে অনুরধ করেন যে তার কবুতর গুলো খুবই পছন্দ হয়েছে আর তিনি এটা নিতে আগ্রহী যাই হোক দাম দর শেষে, ক্রেতা তাকে বিশেষ ভাবে অনুরধ করলেন যেন তিনি কবুতর গুলো ঢাকায় পৌঁছে দিবার ব্যাবস্থা যেন করেন তাহলে তিনি কৃতজ্ঞ থাকবেন। যেহেতু লিতন ভাইয়ের নিয়মিত অফিসের কাজে ঢাকায় আসতে হয়,তাই তিনি কোন প্রকার দ্বিমত না করেই রাজি হয়ে গেলেন। গত তিনি বৃহস্পতি বা রাতে গাড়িতে উতলেন ঢাকার জন্য শুক্রবার ভোরে তিনি ঢাকার খিলগাঁও পেট্রোল পাম্পের অখানে কথামত দাড়িয়ে আছেন, কিছুক্ষণ আগেও ক্রেতার সাথে কথা হয়েছে। ক্রেতা তাকে আসস্থ করেছেন যে তিনি লোক পাঠাচ্ছেন...! কিন্তু ১ ঘণ্টা যাই ২ ঘণ্টা যাই লোকের কোন খবর নাই ক্রেতা কে ফোন দিলে বন্ধ টোন আসে, শেষে কোন উপায়ন্তর …
বিস্তারিত পড়ুন about সাবধান (কবুতরের কেস স্টাডি)
  • 0

কিছু খাবার ও ঔষধ প্রয়োগে সাবধান (কবুতর এর কেস স্টাডি)

“মানুষ তার খাদ্যের প্রতি লক্ষ্য করুক।" (সূরা আবাসাঃআয়াত-৩৪) আমার স্কুল জীবনে এক দুষ্ট প্রকৃতির এক সহপাঠী ছিল, সে সারাদিন ক্লাসে বদমাশি করে বেরাত, আর এ জন্য তাকে প্রতিদিন মার খেতে হত। কিন্তু তাতে তার কিছু আসত যেত না। মার খাবার একটু পরে আবার সে চিরাচরিত দুষ্টামি শুরু করে দিত, তাকে মারের কথা বললে বলত, আরে এটাত শরীর শক্ত করার জন্য। যাই হোক সে যেকোনো পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রেখে কাজ করতে ও কথা বলতে পারত। একবার শিক্ষা সফরে যাচ্ছিলাম রাস্তার পাশে নাম না জানা না ধরনের গাছ, এক ছাত্র জিজ্ঞাস করল। এগুলো কি গাছ? সে সঙ্গে সঙ্গে উত্তর করল, “ল্যাভেশিয়া”...আমি তার দিখে ভুরু কুচকে জানতে চেষ্টা করলাম সে সত্য বলছে কিনা? সে বুঝতে পেরে চোখ টিপ মারল, বুঝলাম বরাবরের মত এবারও সে চাপা মারছে। তার পুরাটাই বদমাশি ছিল, তবে তার একটা ভাল গুন ছিল যে ভুলটা সে করত পরে সে, সেটা স্বীকার করত। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কিছু খাবার ও ঔষধ প্রয়োগে সাবধান (কবুতর এর কেস স্টাডি)
  • 0

নতুন খামারি ও কবুতর পালকদের জন্য কিছু জরুরি কথা (কবুতরের কেস স্টাডি)

আমাদের দেশে ছোট বেলার রাজার গল্পে কৃষকের ছেলে রাজার মেয়েকে বিয়ে করে অর্ধেক রাজত্ব পেল আর সুখে শান্তিতে বাস করতে থাকল অথবা বাংলা সিনেমা যদি দেখি তাহলে দেখব নায়ক যেকোনো একটা ঘটনা ঘটিয়ে, দৌড়াতে শুরু করল, আর দৌড়াতে দৌড়াতে বড় হয়ে, একজন সফল ব্যাবসায়ি বা একজন নামকরা ব্যাক্তি বা একজন নামকরা ডন হয়ে গেল। বা নায়কের মা নায়ককে কোলে নিয়ে গান গায়তে গায়তে নায়ক বড় হয়ে গেল ও একজন সফল মানুষ হয়ে গেল। এটাই হল অধিকাংশ বাংলা সিনেমার বা শিশুতোষ গল্পের চিত্র। আর এসব থেকেই আমার খুবই সংক্ষেপে সফল হবার একটা মানসিক প্রবনতা আমাদের প্রায় অধিকাংশ মানুষের মধ্যে কম বেশী বিরাজ করে। কিন্তু বাস্তব জীবনে এটা হয় না এত সহজে। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about নতুন খামারি ও কবুতর পালকদের জন্য কিছু জরুরি কথা (কবুতরের কেস স্টাডি)
  • 6

আমারা কি সঠিক পথে আছি? (কবুতর এর কেস স্টাডি)

আমি এক সময় একটি মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানি তে কর্মরত ছিলাম প্রায় ১২ বছর সময়। আর এই দীর্ঘ সময়ে যে সব অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি তা আমার পরে অনেক কাজে লাগছে ও এখন লাগছে। সেই সময়ে আমাকে প্রায় একটি তিক্ত অভিজ্ঞতা নিতে হত তা হল, প্রায় আমাদের বাইরের প্রধান অফিস থেকে জুনিয়র লেভেল এর লোক আসত আর আমার উপর দায়িত্ব পড়ত তাদের ট্রেনিং দিবার জন্য, এরপর তারা চলে যেত, তারা যখন আসত তখন আমাদের অনেক সিনিয়র পর্যায়ের সহকর্মীরা তাদের একটু অতিরিক্ত সমিহ করত, এমনকি জুনিয়র হবার পরও তাদের স্যার স্যার বলতে বলতে মুখে ফেনা তুলে ফেলত। এই এটা নিয়ে আমার সিনিয়র দের সঙ্গে লাগত আমার। আর হয়ত এ কারনেই হোক বা সেই বিদেশী সহকর্মীর বদৌলতেই হোক ৭ বছর আমার কোন পদন্নোতি হয়নি। কিন্তু যেদিন আমি সেই কোম্পানি থেকে ইস্থফা দেয় সেদিন আমার একসঙ্গে ৩টি প্রমোশনের অফার দিয়া হয়। যদিও আমি সেই প্রস্তাব ঘৃণা ভরে প্রত্যাখ্যান করে চলে আসি। যাই হোক যা বলছিলাম, তো কেন এই বিদেশী প্রীতি? (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about আমারা কি সঠিক পথে আছি? (কবুতর এর কেস স্টাডি)
  • 0

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ৪থ পর্ব)

“প্রচুর পরিমাণে আলোচনার মাঝে জ্ঞান নির্ভর করে না, বরং জ্ঞান হলো এমন আলো যা আল্লাহ অন্তরের মাঝে স্থাপন করে দেন।” – ইমাম মালিক ইবনে আনাস (রা) আমার গ্রামের বাড়িতে ছোটবেলায় একবার এক মেয়ে পাগল হয়ে গেল হটাত করে! কেউ বলল, মাথা গরম হয়ে গেছে! কেউ বলল, মগজ উল্টে গেছে! কেউ বলল, ভয় পেয়ে এমন হয়েছে! কেউ বলল জিনে ধরেছে! কথাটা শুনে গা ভয়ে কেমন যেন ছম ছম করে উঠল! আমারা কেউ সেই বাড়ির কাছে দিয়ে ভুলেও যেতাম না, আরে জিনে ধরা মেয়ে এই বাসাই আছে। যদি জিন আমাদের দেখে ফেলে, আর মেয়েতিকে ছেড়ে, আমাদের পিছু নেয়। তাহলে? যাই হোক বেশ কিছু দিন পর এক বড় মাপের তান্ত্রিক/দরবেশ যেটাই বলেন পাওয়া গেল খোজ করে। এখন তার ফরমাইশ মত এটা সেটা নিয়ে আশা হল। এখন জিন ছারাবার পালা, জীবনে কখনও জিন ছারান দেখি নাই, তাই ভয় পেলেও একটা কৌতূহল বশে আমরা সবাই গেলাম তথা কথিত জিন ছাড়ান দেখতে। বলে রাখা ভাল, যিনি জিন ছারাবেন তার চেহারা জিনের থেকে কোন অংশে ভাল ছিল না। যাই হোক শুরু হল সেই জটাধারী লোকটির জিন ছাড়ানর কাজ, প্রথমেই অশ্রাব্য গালিগালাজ দিয়ে শুরু হল, এর পর শুরু হল, ঝাঁটা দিয়ে মাইর, লকে বলে মারের উপর ঔষধ নাই। যাই হোক, এর পর, নাকে মু…
বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ৪থ পর্ব)
  • 0

কবুতরের (pigeon) শত্রুদের থেকে সাবধান (কেস স্টাডি)

কবুতরের (pigeon) শত্রুদের থেকে সাবধান (কেস স্টাডি)

এক ধান ক্ষেতে এক পাখী বাসা বানাল। কিছুদিন পর পাখী দম্পতী ডিম দিল ও বাচ্চা ফুটল। দিন যাই মাস পার হল। পাখীর ছানা গুলো বেশ বড় হল। সেই সাথে ধান ক্ষেতের ধান ও পাকল। একদিন মা পাখী সন্ধ্যার সময় ঘরে ফিরলে তার বাচ্চা গুলো বেশ অস্থির ও উত্তেজিত হয়ে তার মাকে জানাল, যে দুইজন লোক এসে বলছিল যে কালকে ধান কেটে নিবে। তার মা তাদের জিজ্ঞাস করল। তারা কী বলছিল? ছানা গুলো বলল তারা একজন আরেকজনকে বলছিল যে, কালকে তোর মামাদের সঙ্গে নিয়ে ধানগুলো কেটে ফেলবো। মা পাখী বলল, না আমাদের হাতে এখনো সময় আছে। আরেকদিন মা পাখী সন্ধ্যার সময় ঘরে ফিরলে তার বাচ্চা গুলো আরও বেশী অস্থির ও উত্তেজিত হয়ে তার মাকে জানাল। সেই দুজন লোক আবার এসেছিলো। মা পাখী তাদের জিজ্ঞাস করল তারা কী বলছিল, ছানা গুলো বলল তারা একজন আরেকজনকে বলছিল যে কালকে তোর চাচাদের সঙ্গে নিয়ে ধানগুলো কেটে ফেলবো। মা পাখী বলল, না আমাদের হাতে এখনোও আরও সময় আছে। ছানা গুলো বেশ হতাশ ও ভীত হল। পরেরদিন আবার একই ঘটনা ঘটল। এবার মা পাখী জিজ্ঞাস করল তারা কী বলছিল। ছানা গুলো বলল, যে তারা বলছিল তোর মামা বা চাচারা ক…

বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের (pigeon) শত্রুদের থেকে সাবধান (কেস স্টাডি)
  • 0

আপনার কবুতর কে ঠিকমত লক্ষ্য করুন (কেস স্টাডি)

আপনার কবুতর কে ঠিকমত লক্ষ্য করুন (কেস স্টাডি) দুই বন্ধুর অনেকদিন পর দেখা হল, এক বন্ধু আরেক বন্ধুকে জিজ্ঞাস করল, কি দোস্ত কেমন আছো ? এক বন্ধু বলল আমি ভাল আছি!...অন্য বন্ধুটি বলল সাধু সাধু...কিন্তু অন্য বন্ধুটি কথার রেশ ধরেই বলল...আমি ত ভাল আছি কিন্তু বাসার কুকুরটা মারা গেছে!...অন্য বন্ধু বলল কেন...? প্রথম বন্ধুটি বলল...এই একটু পাগল হয়ে গেছিল আর কি!... অন্য বন্ধু বলল কেন...? প্রথম বন্ধুটি বলল...আই মরা খেত...অন্য বন্ধু বলল মরা খেত মানে...কেন...? প্রথম বন্ধুটি বলল...এই এলাকায় একটু বন্যা এসেছিল ত...তাই ...। অন্য বন্ধু বলল মানে...? প্রথম বন্ধুটি বলল...মানে হল...বন্যার কারনে...ঘর বাড়ি সব ভেঙ্গে গেল...অন্য বন্ধু আরও অবাক হল...বলল কেন...? আর এর সঙ্গে মরা খাবার কি সম্পর্ক? প্রথম বন্ধুটি বলল...এই ...গরু...ছাগল...হাস...মুরগি...যা ছিল ...সব মারা গেল...কোন খাবার ছিলনা ত...দেশে আকাল লেগে গেল...আর কি...প্রথম বন্ধুটি আরও বলল...আর বন্ধু তুমিতো জান আকাল লাগলে খাবার দাবার ত পাওয়া যাই না...তাই...আর কি...। প্রথম বন্ধুটির বলার...কিছুই রইল না......! (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about আপনার কবুতর কে ঠিকমত লক্ষ্য করুন (কেস স্টাডি)
  • 1

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ৩য় পর্ব)

একদিন আমি মিরপুর থেকে মতিঝিল যাবার জন্য বাসে উঠলাম। চলার পথে জানালার পাশে বসে নানা ধরনের সাইন বোর্ড,বিল বোর্ড আর অ্যাড দেখছিলাম। এসব বিজ্ঞাপনে কত প্রতিশ্রুতি, এটা খেলে বুদ্ধি বাড়ে, ওটা খেলে তাড়াতাড়ি বাড়বে ইত্যাদি। হতাথ কন্টাক্টর আর এক যাত্রীর মধ্যে তুমুল ঝগড়া শুনে ঘার ফিরালাম। কি ব্যাপার জানার চেষ্টা করলাম। শেষে জানতে পারলাম যে, এক যাত্রী উত্তরা যাবেন কিন্তু ভুলে এই বাসে উঠে পড়েছেন! কিন্তু তিনি বাসের কন্টাক্টরকে ধমকাচ্ছেন। কেন সে তাকে বলেনি ইত্যাদি ইত্যাদি। শুধু এটাই না, তিনি যে শুধু ভাড়া দিবেন না তা নয় বরং উল্টো ভাড়া দাবি করে বসলেন। কন্টাক্টর ত মহা বিপদে পড়ল আর সে জন্য দুই একজন যাত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণের বৃথা চেষ্টা করছিল। আমি ভেবে পেলাম না কোন পক্ষে যাব। যদি ন্যায় এর পথ ধরি তাহলে আমাকে বাস কন্টাক্টর এর সাপোর্ট করতে হয়। তাহলে আবার অন্য যাত্রীরা বলবেন ভাই আপনি যাত্রী হয়ে, কিভাবে আরেক যাত্রীর বিপক্ষে যাচ্ছেন। উনি এ পথে নতুন ইত্যাদি ইত্যাদি। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ৩য় পর্ব)
  • 0

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ২য় পর্ব)

স্কুল জীবনে ব্যাপারে মধ্যমানের ছাত্র ছিলাম অলসতার কারনে। সেই পড়া গুলই শুধু পরতাম যেগুলো গুরুত্বপূর্ণ মনে হত বা পরীক্ষায় কমন পড়ার সম্ভাবনা থাকত। আর শিক্ষা জীবন মোটামুটি এভাবেই পার করেছি। কিন্তু কর্ম ও ব্যাক্তি জীবনে এসে যেগুলো বাদ দিয়েছি সেগুলকেই আবার নতুন করে শিখতে হয়েছে। এর মানে হল জীবনে কোন কিছুকেই ফাকি দিবার কোন সুযোগ নেই। অর্থাৎ আমরা শিক্ষা থেকে পালিয়ে যেতে পারব কিন্তু জীবন থেকে না। জীবন আমাদের সব কিছুই শিখতে বাধ্য করবে। কেও হয়তো সহজে আর কেউ হয়তো অনেক মূল্য দিবার পর। আমাদের জীবনে যত সময় যাচ্ছে, আমরা সামনের দিকে এগোনোর বদলে উল্টো পথে হাঁটছি। আমরা যে শুধু উল্টো পথেই হাঁটছি তাই নয় আমাদের কমন সেন্স ও দিন দিন ভোতা হয়ে যাচ্ছে। আর তাই হয়তো কন্তি সঠিক আর কোনটি নয় সেটি বিবেচনার শক্তিও নাই। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ২য় পর্ব)
  • 0

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ১ম পর্ব)

পবিত্র কোরআন এ আল্লাহ বলেছেন, "পড় তোমার প্রভুর নামে যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন।" "পড়" এই আয়াত এর তাফসির করা হয় তাহলে বুঝা যায় যে আল্লাহ বলেছেন যে পড়তে বা জানতে। কিন্তু আমরা পড়তে পছন্দ করিনা শুনতে বেশি পছন্দ করি, আর তাই নানা ধরনের কুসংস্কার আর ভুল ধারনা আমাদের গ্রাস করে ফেলেছে। আমাদের অবস্থা এরকম যে সবই জানি কিন্তু কিছুই জানি না। অনেকের কাছ থেকে শুনতে পায় তারা বলে থাকেন। অনেকের ধারনা বড় খামারি বলতে বেশি কবুতর থাকলেই বুঝে, আসলেই কি তাই। আসলে তা না, আপনার কাছে হাজার কবুতর থাকতে পারে কিন্তু আপনি ভাল মত পালন করতে পারেন না, বাচ্চা তুলতে পারেন না, কবুতর বাচাতে পারেন না, ঠিকমত খেয়াল রাখতে পারেন না। তাহলে আপনাকে বড় খামারি বা কবুতরবাজ বলার কোন কারন নেই, আপনি যেই হন না কেন। আর আপনার যতই নাম থাকুক। তাতে কিছু যাই আসে না। আপনি যদি মনে করে থাকেন, আরে এটা ত একটা সাধারন একটা প্রাণী। এরা আর কি বুঝবে। তাহলে আপনাকে একটু বলি যে আপনি একটা ভুলের রাজ্যে বাস করছেন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তাদের অনুভুতি আপনার আমার থেকে অনেক অনেকাংশে বেশী। তারা খুব সহজেই বুঝতে পারে যে আপনি এই প্রাণীটিকে অবজ্ঞা করছেন কিনা? …
বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি ১ম পর্ব)
  • 0

কবুতরের গ্রীষ্ম কালীন মাসিক ছক

কবুতরের গ্রীষ্ম কালীন মাসিক ছক আমাদের দেশে ঋতু পরিবর্তন এর সাথে সাথে কবুতরের রোগ বালাই ও তাদের ধরন পরিবর্তন করতে থাকে। আর আমাদের কম বেশি সকলের বাসায় বাচ্চাদের ক্ষেত্রে একটু বেশি খেয়াল নিতে হয় এই সময়ে। কারন বাচ্চাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা একটু কম থাকে, আর তাদের নাজুক স্নায়ু এর কারনে। বাচ্চাদের মত আমাদের বাসাতে সখের বশে নানা ধরনের পোষা প্রাণী পালন করে থাকি, আর সেগুলোর মধ্যে কবুতর অন্যতম। আর রোগের ক্ষেত্রে সৌখিন কবুতর (fancy pigeon) রোগ বালাইয়ের দিক দিয়ে একটু বেশি এগিয়ে। কিছু হলেই রোগাক্রান্ত হয়ে পড়ে। সেটা মৌসুম পরিবর্তন, ও পরিকল্পিত ব্যাবস্থাপনা, একটু কম পরিচর্যা ইত্যাদি এদিক ও দিক হলেই দেখা যায় সমস্যা শুরু। কিন্তু আমরা যদি একটু খেয়াল রাখি তাহলেই এ সব অনাখাংখিত পরিস্থিতি থেকে মুক্ত হতে পারি অনায়াসে। যেমন কিছু প্রাথমিক চিকিৎসা, কিছু প্রাথমিক ধারনা, বা অপ্রয়োজনীয় ঔষধের প্রয়োগ থেকে বিরত থাকা, বা না জেনে ঔষধ প্রয়োগ না করা ইত্যাদি। যেমন বেশীরভাগ ঠাণ্ডা জনিত সমস্যা ও ডায়রিয়া তৈরি হয় পুষ্টি হীনতা ও অ্যান্টিবায়টিক এর অযাচিত প্রয়গ থেকে তেমনি আবার বেশীরভাগ রোগ বৃদ্ধি পেয়ে মারাত্মক অবস্থা …

বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের গ্রীষ্ম কালীন মাসিক ছক
  • 1

সৌখিনদের সৌখিন কবুতর পালন পদ্ধতি

সৌখিনদের সৌখিন কবুতর পালন পদ্ধতি নিয়ে কিছু কথা বলব। কবুতর একটা আমন প্রানি যে, এটা মসজিদ, মন্দির, গির্জা, মঠ ছাড়াও গ্রামের ১০০ ঘরের মধ্যে ৬০ ঘরেই কবুতর পালতে দেখা যায়। কবুতরের প্রতি মানুষের যে আকর্ষণ তা অন্য কিছুতে নাই। এটা মানুষের নেশা, পেশা, সখ ও সময় কাটানোর অন্যতম মাধ্যম হিসাবে আজ পরিচিত। কবুতর প্রেমিদের সেই নেশা, পেশা ও ভাললাগার আর একধাপ এগিয়ে নিয়েছে সৌখিন কবুতর (fancy pigeon), এই সৌখিন কবুতর যে কত সুন্দর হতে পারে না দেখলে বিশ্বাস করা যাই না। আজ ইস্কুলের একজন ছাত্র থেকে শুরু করে অফিস আদালতের কর্মরত, সেনাবাহিনী, জর্জ, উকিল, পুলিশ কমিশনার এর মত সব উচ্চপদের মানুষ আজ এই কবুতর পালন কে সখ, নেশা যেটাই বলা হোক না কেন। আজ সবারই ভাললাগা ও ভালবাসার পাখিতে পরিনত হয়েছে এই কবুতর পালন। আজ সৌখিন কবুতর (fancy pigeon) পালন শুধু সখ বা নেশা না। এটা অনেক বড় পেশাতেও পরিনত হয়েছে। আজকাল অনেক শিক্ষিত বেকার যুবকরা এই পেশায় নিজেদের কাজে লাগাচ্ছে। এই পেশায় সময় দিয়ে অনেক যুবকরা তাদের বাইরের আড্ডা, বা খারাপ সঙ্গ থেকেও নিজেদের রক্ষা করতে পারছে। একজন কবুতর খামারি নিজেও বলতে পারবে না যে তাকে খামারে সময় দিতে…
বিস্তারিত পড়ুন about সৌখিনদের সৌখিন কবুতর পালন পদ্ধতি
  • 3

নরম ডিম শেল বা Misshapen ডিম

পাতলা শেল, নরম ডিম শেল, কোন শেল ছাড়া, সচ্ছিদ্র , অনিয়ম বিকৃত ডিম ও অন্যান্য ডিম শেল বিভিন্ন কারণে হতে পারে। ডিমের উৎপাদন হটাৎ ড্রপ করতে পারে, এক্ষেত্রে রোগের সুস্পষ্ট লক্ষণ না থাকলেও, এ পরিস্থিতিতে সংক্রামক হতে এর সম্ভবনা বেশি থাকে। এছাড়াও সম্ভাব্য পরিবেশগত ও খাদ্যতালিকাগত বিষয় জরিত (ডিম পাড়ার অবস্থান আকস্মিক পরিবর্তন, নির্দিষ্ট রোগের কারনে যেমন ওজন, রেসপিরেটরি, ক্ষতি, ইত্যাদি বা) । নরম শেল ডিম সবচেয়ে সাধারণ কারণ খাদ্য ও পরিবেশগত। ডিম বা ডিমের অস্বাভাবিকতা সম্ভাবনার কবুতরের বয়স বৃদ্ধিড় সঙ্গেও ঘটতে পারে। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about নরম ডিম শেল বা Misshapen ডিম
  • 1

আমি এটা করি, আপনিও এটা করতে পারেন (কেস স্টাডি)

সামাজিক সাইট গুলো যোগাযোগের একটা ভাল মাধ্যম! এটার যেমন ভাল দিক আছে তেমন খারাপ ফলও আছে। এখানে একটা ছোট আমন্ত্রণ যেমন মুহূর্তে লাখ লাখ লোক জড় করতে পারে। তেমনি একটা ছোট ভুল লাখ লাখ লোকের জীবন কে দুর্বিষহও করে তুলতে পারে। অথবা একটা সঠিক তথ্য অনেক জীবন বাঁচাতে ও তাকে শান্তিময় করে তুলতে পারে। এখন এটা আমাদের উপর আমরা এটা কিভাবে ব্যাবহার করছি তারই উপর। আমি অন্য কোন প্রসঙ্গে কথা বলছি না আমি বলছি কবুতরের গ্রুপ এর কথা। এখানে অনেকে ভাল উপদেশ দেন। আর কিছু আছেন যারা না জেনেই বলে ফেলেন মনে মধ্যে যা আছে তাই। কিছু মানুষ আছেন যারা আবার সরাসরি উপদেশ দেন না। তারা এভাবে বলে থাকেন যে, আমি এটা করে উপকার পেয়েছি,আপনিও এটা করতে পারেন। যদি আপনি তার ভুল ধরেন তাহলে বলবে আমি ত তাকে এটা করতে বলিনি। (যদিও বলে রাখা ভাল, এই ধরনের কথা যারা বলে তারা এই কাজ নিজেরাও মনে হয় করেন না।) যারা এমন ভাবে তারা মানুষ দের ভুল পথে পরিচালিত করে থাকে। আর তাতে মাসুল নতুন কবুতর পালকরাই দিয়ে থাকেন। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about আমি এটা করি, আপনিও এটা করতে পারেন (কেস স্টাডি)
  • 0

কিছু রোগ সম্পর্কে কিছু সতর্কতা (কেস স্টাডি)

কবুতর পালতে গিয়ে প্রথম পর্যায়ে নানা অসুবিধার সম্মখিন হন অনেকেই আমিও হয়েছি। আর তাই সব সময়ই চেষ্টা করি যেন ,আমি যে অসুবিধা গুলোর সম্মখিন হয়েছি সে রকম যেন আর কাওকেই পরতে না হয়। তাই সাধ্যমত চেষ্টা করি। বিভিন্ন ভাবে কিন্তু যত দিন যাচ্ছে ততই হতাশ হচ্ছি। ছোট বেলায় শুনেছিলাম যে ভুতের নাকি উল্টো পায়ে হাঁটে। কিন্তু আজ অনেকদিন পর মনে হল যেন আমরাও ঠিক ভুতের মত উল্টো পায়ে হাঁটছি। বাসে উঠতে গেলে একসঙ্গে ১০ জন উঠার চেষ্টা করি,অফিস এ একজন আরেকজনের উপর ল্যাঙ মারার চেষ্টা করি। আমরা মাঝে মাঝে ভুলে যায় একজন উঠলেই আরেকজন উঠবে। কিন্তু আমার তা করি না। যাইহোক, আমি আমার একটা পোস্ট এ বলেছিলাম আমরা পড়তে পছন্দ করি না। সব কিছুই তৈরি চাই। আর তাই হয়তো সমস্যা দিন দিন কমা ত দূরে থাক আরও বাড়ছে। সামাজিক সাইট গুলো তে কবুতর সংক্রান্ত যে ধরনের অসম্পন্ন প্রশ্ন দেখা যায়, যেমনঃ (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কিছু রোগ সম্পর্কে কিছু সতর্কতা (কেস স্টাডি)
  • 5

সুধুই ডিম চাই by KF Sohel Rabbi

একভাই একদিন ফোন দিলেন যে তাঁর একজোড়া কবুতর কেনার পর থেকে ডিম দিচ্ছে না। কি করা যায়? আমাদের দেশে অধিকাংশ খামারি আছেন যারা প্রতিনিয়ত আশা করেন কবুতর ডিম বাচ্চা করবে আর করতেই থাকবে। আর সেটা যে কোন মুল্যেয় হোক না কেন! যদি কোন কবুতর ১৫ দিন বা ১ মাস ডিম দিতে দেরি করে তাহলে চিন্তার অন্ত থাকে না। কিন্তু কেউ এততুকু বুঝতে চাই না যে, এই প্রাণীটিরও বিশ্রাম এর প্রয়োজন আছে। ব্যাপারটা অনেকটা এরকম যে “ তুই ডুবে মর আমাকে শালুক তুলে দে " কথায় বলে যে একটা কবুতর ১২ মাসে ১৩ বার ডিম দেয় স্বাভাবিক পরিবেশ ও সুষম খাবার পায় সেই অবস্থায়। কিন্তু খুব কম খামারিই আছেন যে তাদের এই অবস্থা নিশ্চিত করতে পেরেছেন। আপনি যেমন ফসল বুনবেন আর ফলও তেমনি পাবেন। আপনি শুধু গম ভুট্টা খেতে দিয়ে আপনি কখনও ভাল ডিম বাচ্চা আশা করতে পারেননা। কিছু খামারি আছেন যারা কিছু দামি জাতের কবুতর কে দিয়ে নিয়মিত ডিম নেন। আর ফসটার দিয়ে বাচ্চা পালেন। এই ভাবে মাসে ২-৩ বার ডিম নেনে।আর কিছু খামারি আছেন যারা ২ মাদী ও ১ নর দিয়ে ব্রীড করেন ও ডিম নেনে। আর এটা তারা গর্ব ভরে প্রচার করেও বেড়ান। এখন কেউ যদি এই ধরনের ব্রীডার কে কসাই বলে আখ্যায়িত করেন তাহলে …
বিস্তারিত পড়ুন about সুধুই ডিম চাই by KF Sohel Rabbi
  • 0