কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ (Internal Parasites)

কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ কবুতরের অবস্থার উপর একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। কবুতরের পারামক্সি,সাল্মনিল্লা এর পর সবচে মারাত্মক যে রোগ সেটা হল Internal & External Parasites । আমরা এখানে Internal Parasites বা ক্রিমির ব্যাপারে আলোচনা করব। ক্রিমির কারনে কবুতরের ওজন হ্রাস, খারাপ moult, ডায়রিয়া, এবং ক্লান্তি ছাড়ও আরো উপসর্গ থাকতে পারে। এটি ঋণাত্মক উর্বরতা প্রভাবিত করতে পারে। Hairworms roundworms আর পায়রা জন্য ক্ষতিকর। এটা সবসময় পায়রা আচরণ একটি কৃমি রোগের ক্ষেত্রে বাঞ্ছনীয়। যদি সময় মত এর চিকিৎসা না করা হয় তাহলে কবুতরের মৃত্যু অনিবার্য। লক্ষনঃ কবুতরের পাখা ঝুলে যাওয়া। খাবারে অরুচিও পানি বেশি খাওয়া। বিষ্ঠার সাথে ক্রিমির টুকরা বের হাওয়া। ডাইরিয়া মত পানি পায়খানা করা। কবুতরের ওজন হ্রাস। ডিম ঋণাত্মক উর্বরতা। ফিতা ক্রিমির জন্য শ্বাসকষ্ট হতে পারে। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের কৃমি বা কীট রোগ (Internal Parasites)
  • 2

কবুতরের জন্য শীতের মাসিক ছক

কবুতরের জন্য শীতের মাসিক ছক আমরা কবুতর পালি শুধু পালার খাতিরে অথবা লোক দেখান অথবা ব্যাবসায়িক উদ্দেশ্য হাসিল করার জন্য। যদিও সকল কে এক কাতারে ফেলা টা ঠিক হবে না। সে যাই হোক, আমার বলার উদ্দেশ্য হল যদি কবুতর পালতে হয় তবে পালার মত পালুন। অনেকে আছেন যে ইচ্ছা আছে কিন্তু সময়ের অভাবে আর একদল আছেন যারা অজ্ঞতা বসত,কিছু মানুষ আছে যে তাদের অবহেলায়। অনেক কবুতর মারা যায়। কিন্তু একটু সচেতন হলেই এই সব থেকে নিচিন্ত হতে পারেন। আর কিভাবে এটা করতে হবে তা একটু চেষ্টা করলেয় জানতে পারবেন। কিছুদিন আগে গরমের জন্য একটা মাসিক ছক দিয়া হয়েছিল, কিন্তু মনে রাখতে হবে। গরমের আর শীতের খাবার ও ভিটামিন এক হতে পারে না। কিছু খাবার ও ভিটামিন গরমে একটু কম দিতে হয় যেটা শীতের সময় আবার একটু বেশি করে প্রয়োগ করতে হয়। অনেকে আছে যারা ঘরের ভিতরে কবুতর পালেন আবার অনেকে বাইরে। ভিতরে বা বাইরে যেখানেই পালুন না কেন, সব ক্ষেত্রেই একটু বেশি খেয়াল রাখাটা জরুরি। বিশেষ করে বাইরে যারা পালেন। তাদের ঠাণ্ডা লাগার প্রবণতা একটু বেশি থেকে যায়। আর সেটা যদি গ্রাম এলাকা হয় তাহলে ত কথায় নেই, ঠাণ্ডা যেন উড়ে আসে জুড়ে বসে। আর আপনি এই সব থেকে পরি…
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের জন্য শীতের মাসিক ছক
  • 1

কবুতরের গ্রিট (Grit)

কবুতরের গ্রিট পাখির যেকোনো বীজ হজমের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। পাখির হজমক্রিয়া বীজ এর খোলস যেটা হজমের প্রতিবন্ধক হিসাবে কাজ করে। গ্রিট এই প্রতিবন্ধকতা দূর করে হজমে সাহায্য করে। অনেকে মনে করেন গ্রিট কবুতরের ডিমের মান উন্নত করে, কিন্তু কথাটা সঠিক নয়। গ্রিট ডিমের জন্য তেমন কোন ভুমিকা রাখে না। তবে কবুতরের বাচ্চাদের বেড়ে উঠার জন্য গ্রিটের লবন খুব গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। গ্রিট সাধারণত দুই ধরনের মিস্রনে হয় ১. দ্রবণীয় ২. অদ্রবণীয় ১. দ্রবণীয়ঃ ইটের গুরা(চালের সমান) সামুদ্রিক ঝিনুকের খোলার গুঁড়ো,ঝিনুক শেল, লবণ, কাঠকয়লা, সুমুদ্রের ফেনা(cat fish), পোড়া মাটি, DCP, ডিমের খোসা, ইত্যাদি। দ্রবণীয় উপাদান শরীরে হজম হয়ে যাই। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের গ্রিট (Grit)
  • 1

কবুতরের রিং (কেস স্টাডি)

রিং! রিং!! রিং!!! জি না এটা কোন টেলিফোনের শব্দ না। এটা কবুতরের পায়ে লাগানো একটা ডিভাইস। যা আজ একটা ব্যাবসায়িক হাতিয়ারে পরিনত হয়েছে। আজকাল মানুষ রিং এর কথা শুনলেই পাগল পারা হয়ে যায়,আর তাই যে কবুতর এর স্বাভাবিক দামের থেকে ৩ গুন ৪ গুন বেশি দামেও কিনতে পিছপা হয়না। কি এই রিং ? কি তাঁর মহাত্ত ? আর কেনই বা এটা লাগানো হয়। এসব কিছুই অনেকেই জানেন না, কিন্তু তারপরও রিং এর প্রতি একটা অলিখিত টানে মানুষ ছুটে আসে এই রিং লাগানো কবুতরের কাছে। আর এই সুযোগে কিছু দু পয়সা কামিয়ে নিচ্ছে সেই সব চালাক অসাধু লোকজন। আর তাই রিং এর ব্যাবসাও বেশ রমরমা। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের রিং (কেস স্টাডি)
  • 0

Gorguero pouter কবুতর পরিচিতি

এমন একটা কবুতর কল্পনা করুন যা প্রতিবার দাম্ভিকতার সাথে ঘরের একই জায়গায় উড়ে এসে বসে। এই কবুতর প্রজাতিটি দক্ষিণ অঞ্চল এই বেশি দেখা যা তাদেরকে অন্যান্য স্পানিশ প্রজাতি হিসেবে খ্যাত Don Juan এর প্রথম সারির Gorguero pouter নামে পরিচিত। এর জন্মস্থান স্পেন। বিশেষকরে যে সকল খামারিরা মানসম্মত breed পেতে চান তাদের জন্য এটা খুবই আকর্ষণীয় কবুতরের প্রজাতি। স্পেন এর লোকেরা বিভিন্নভাবে এই প্রজাতির কবুতর পালন করে থাকে। তাদের মধ্যে একটা ধারনা প্রচলিত আছে যে Jiennense এবং certainly প্রজাতির কবুতর থেকেই মুলত Gorguero প্রজাতির কবুতরের উৎপত্তি এবং এটি এখন বিলুপ্তির পথে। Gorguero প্রজাতির কবুতর টিকিয়া রাখার জন্য পশুচিকিৎসক, প্রজনন বিশেষজ্ঞ এবং বিখ্যাত কবুতর পালক José Antonin i Cuatrecasas এর অবদান অনস্বীকার্য। ইনিএ নতুনভাবে এই প্রজাতির কবুতর আবিস্কার করেন। তিনি তার বাল্য জীবনে Raphael Buche Brage এর সাথে পরিচিত হন যিনি একজন ইতিহাসবিদ এবং স্পেন এর কবুতর সম্প্রসারন এ অনেক বড় ভুমিকা পালন করেন। Raphael এর কাছে তার বাবার আঁকা ১৯৯৫ সালের একটি Gorguero প্রজাতির কবুতরের প্রতিকৃতি ছিল যা পরবর্তীতে Anton…
বিস্তারিত পড়ুন about Gorguero pouter কবুতর পরিচিতি
  • 0

ঈনব্রীডীং (Inbreeding) (সংশোধিত ও পরিমার্জিত) দূরবর্তী আত্মীয় বা অনাত্মীয় প্রাণীর প্রজনন

inbreeding এর ব্যাপারে কম বেশি সবারই কিছু না কিছু ধারনা শোনা আছে বলে আশা করি, যাইহোক, inbreeding কোন ব্যবহারিক উদ্দেশ্য আছে কি না এটা নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে। আর এটা অনেক কে এই বিষয়ে নিয়ে বিভ্রান্তিকর অবস্থার মধ্যে ফেলে। Inbreeding বলতে নিকট আত্মীয়তাসূত্রে আবদ্ধ প্রাণীদের মধ্যে সন্তান উৎপাদন কে বুঝাই। Inbreeding হল নিকট Kin(আত্মীয়) এবং out breeding, দূরবর্তী আত্মীয় বা অনাত্মীয় প্রাণীর প্রজনন। সহজ কথাই ভাল প্রজনন এর আশায় রক্ত লাইন বরাবর এর বাইরের অন্য রক্তের প্রজনন কে বুঝাই। প্রজনন দীর্ঘ বিবর্তনীয় জীববিজ্ঞানে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। Inbreeding জেনেটিক অপূর্ণতা ব্যাপক হত্তয়া এবং এটি তার পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে প্রয়োজন হতে পারে। এর মাধ্যমে সম্ভাবনা বৃদ্ধি, একটি জাতের জনসংখ্যা জিন বৈচিত্র্য হ্রাস করা হয়। অধিকাংশ উদ্ভিদ এবং প্রাণীর inbreeding এড়ানোর আচরণগত এবং অঙ্গসংস্থান পদ্ধতি বিকশিত করার সম্ভাবনা রয়েছে। যাইহোক, আজ অনেক বিপন্ন প্রজাতির শুধুমাত্র inbreeding করা অনিবার্য। তাই এটি সংরক্ষণবাদীর জন্য একটি উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা প্রজনন নিয়ে আলোচনা করার সময় এ…
বিস্তারিত পড়ুন about ঈনব্রীডীং (Inbreeding) (সংশোধিত ও পরিমার্জিত) দূরবর্তী আত্মীয় বা অনাত্মীয় প্রাণীর প্রজনন
  • 1

কবুতরের সঠিক ভাবে রোগ নির্ণয় ও ঔষধ প্রয়োগ

রসূল (সঃ) বলেন, "একজন মুসলিম যিনি একটি পোষা প্রাণী রাখতে পছন্দ করে তার দায়িত্ব হল ভালমত এর যত্ন নেয়া,যথাযথ খাদ্য, পানি এবং আশ্রয়ের ব্যাপারে খেয়াল করা আবশ্যক। কোন বাক্তি যদি একটি পোষা প্রাণীর যত্নর ব্যাপারে উপেক্ষিত হয় তার কঠিন শাস্তি বর্ণনা করেছেন।" কবুতর পালার কিছু নিয়ম আছে। শুধু পালার খাতিরে পালেন। একজন খামারি ১০০ কবুতর পাললে তাকে খামারি বলা যাবে না। যদি না তিনি সঠিক ভাবে খামারের পরিচর্যা করেন অথবা এই ব্যাপারে সঠিক পদক্ষেপ না নেন। কিন্তু আপনি যদি অল্প কবুতর সফল ভাবে পালেন তবেই আপনাকে একজন আদর্শ খামারি বলা যাবে। আর এটাই একজন খামারির সার্থকতা ও আনন্দ। কবুতর অসুস্থ হলে জবাই করে ফেলা বা কাওকে দিয়ে দিয়া অথবা অপেক্ষা করা কবে মারা যাবে এটা কখনই একজন সত্যিকার কবুতর প্রেমির কাজ হতে পারে না। তিনি যতই দাবি করেন না কেন! (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের সঠিক ভাবে রোগ নির্ণয় ও ঔষধ প্রয়োগ
  • 5

মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ২

মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ২ অপেক্ষাকৃত পরিষ্কার, watery প্রস্রাব অংশ আপনার পাখি এর কিডনি দ্বারা উত্পাদিত হয়। যদিও কবুতরের মুত্রথলি নাই। পাখি এর ফোঁটা ফোঁটা পানি পরিমাণ সরাসরি আপনার পাখি যে খাবার জল পান করে তার দ্বারা প্রভাবিত হয়। প্রস্রাব urates নামক একটি স্ফটিক প্রস্রাব দ্বারা গঠিত একটি পরিষ্কার অংশ urates( chalky সাদা অংশ)। (অপরিষ্কার জল ) বলা হয়। কখনও কখনও মুত্র এবং Urates একত্রিত হয়ে একটি মেঘলা তরল গঠন এর মত দেখায়। এই পরিবর্তনগুলি রঙ পরিবর্তন এবং পরিমাণ ভিজা stools শুকনো খাবার সঙ্গে শোষক হওয়া উচিত। ফোঁটা ফোঁটা মধ্যে স্থায়ীরূপে প্রচুর পরিমাণে জল উপস্থিত গুরুতর রোগ হিসাবে চিহ্নত হতে পারে এবং আপনি আপনার পশুচিকিত্সক সঙ্গে পরামর্শ করা উচিত্। একটা কথা মনে রাখতে হবে পায়খানার সাথে সাদা অংশ মানেই কিন্তু রোগ না আর এই ব্যাপারে একটু খেয়াল রাখবেন। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ২
  • 2

মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ১

মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ১

আপনি আপনার পাখির বা কবুতরের অভিভাবক। আপনার পাখির জন্য কোনটা ভাল কোনটা মন্দ এটা আপনি ছাড়া অন্য কেও ভাল বুঝতে পারবে না, ঠিক যেমন আপনার সন্তানের বেলাতে যেমনটি ঘটে থাকে। তবে পার্থক্য হল যে পাখির অসুস্থতা মানুষের মত বুঝা যায় না। আর এটা বুঝার জন্য প্রতিদিন মল নিরীক্ষন দ্বারা আপনি আপনার পাখির স্বাস্থ্য সম্বন্ধে নিশ্চিত হতে পারেন। আর এটার জন্য প্রথম দিকে যদি একটু সময় ব্যয় করতে হয়, তাহলে তাই করুন। কিন্তু আপনাকে তা করেতেই হবে। কারন আপনি যদি যথেষ্ট ভাবে এই অধ্যয়ন করেন, তাহলে হয়ত এর সাথে পরিচিত হয়ে একদিন আপনার কবুতরের জীবন বাঁচাতে সাহায্য করতে পারে। আপনার সকাল এবং সন্ধ্যার পর্যবেক্ষণ , আপনার পাখিকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। আর এই ক্ষেত্রে আপনি নিয়মিত ভাবে খাঁচার নীচে প্রতিদিন poopy কাগজপত্র পরিবর্তন করুন বা প্লেইন নিউজপ্রিন্ট কাগজ গামছা বা পরিষ্কার মোম কাগজ ব্যবহার করুন,যাতে poop Detecting সহজ হয়।

(বিস্তারিত…)

বিস্তারিত পড়ুন about মলের মাধ্যমে কবুতর অসুস্থতা শনাক্তকরণ পদ্ধতি ১
  • 1

কবুতরের/পাখির উপর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

অনেকেই কবুতর পালন কে একটি পেশা হিসেবে নিতে শুরু করেছে। ইদানিং বেশিরভাগ খামারি তাদের কবুতরের ঠাণ্ডা,কাসি,শ্বাস কষ্ট, ডায়রিয়া ইত্যাদি সহ নানা সাধারন কিছু অসুবিধার সম্মুখিন হচ্ছেন। যদিও তারা খামার ব্যাবস্থাপনার জন্য যা যা দরকার তাই করছেন কিন্তু তবুও এর থেকে পরিত্রাণ পাচ্ছেন না। আর কারন কি? একটু চিন্তা করে দেখা দরকার ! কিছু লোক ও উপদেশ কারী প্রায়ই টিস্যুর অনাহত ক্ষতির চিন্তা না করেই তারা অবাধে অ্যান্টিবায়োটিক নির্ধারণ করে থাকেন। কেও কেও আবার এন্টিবায়োটিক +হারবাল+হমিও+সাধারন ঔষধ একসঙ্গে মিক্স করে ধরে খাওয়ানো নির্দেশ দিয়ে থাকেন। ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধ ও নির্মূল করার জন্য। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে একটি দীর্ঘায়িত সময়ের যখন ব্যবহৃত কিছু অ্যান্টিবায়োটিক (Ciprofloxacin, ampicillin এবং kanamycin) এই তিনটি, অক্সিডেটিভ স্ট্রেস (অক্সিজেন এর ভারসাম্যহীনতা) বলে একটি ঘটমান বিষয় পাওয়া গেছে । এই প্রভাবে কোষ রাসায়নিকভাবে প্রতিক্রিয়াশীল অক্সিজেন অণু উত্পাদন করতে বার্থ হয় এর ফলে ডিএনএ সৃষ্ট ক্ষতি, এনজাইম এবং ব্যাকটেরিয়ার কোষ ঝিল্লির এছাড়াও শরীরের নিজের ঘর প্রভাবিত করতে পা…
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের/পাখির উপর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া
  • 0

আমার পছন্দের কবুতর ।

আমি সব ধরনের কবুতরই পছন্দ করি তাদের নিরিহ স্বভাবের কারনে। কিন্তু তাদের মধ্যে বিশেষ কিছু জাত আছে যে গুলো আমার পছন্দের কবুতর আর এগুলো পালতেও সুবিধা। তাদের মধ্যে প্রথমে লক্ষ্যার নাম আগে আসে, এর পর সিরাজি, বিউটি হমার, হমার স্ত্রেসার ইত্যাদি। পোর্টার আমার পছন্দের তালিকাই ছিল, কিন্তু দুঃখ জনক হলেও সত্য যে আজ এই কবুতরের জাত একেবারেই হযবরল। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about আমার পছন্দের কবুতর ।
  • 0

কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ?

কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ? আমার এক পরিচিত আমাকে একদিন জানালেন যে তার একজোড়া কবুতর ৪ টা ডিম দিয়েছে এবং তিনি নিশ্চিত করে বললেন যে এটা নর আর মাদি, আমি তাকে বুঝানর পরও তিনি তর্ক করলেন, আমি আর কিছু বললাম না, কিছুদিন পর তিনি বুঝতে পারলেন যে আসলে দুটাই মাদি। আসলে এটা উনার কোন দোষ নাই । আবার অনেক ক্ষেত্রে যখন বেশি মারামারি করে তখন বুঝা যাই যে দুটি নর। কারন অনেক ক্ষেত্রেই এই ধরনের অভিজ্ঞতা হয়। সৌখিন কবুতরের ক্ষেত্রে এটা খুবই কঠিন নর ও মাদি আলাদা করা এবং অনেক অভিজ্ঞ সদস্যদেরও অনেক সময় বোকা হয়ে যান আর এটা সবসময় সহজ নয়। আর সেটা যদি বাচ্চা হয় তাহলে ত কথাই নাই, কাজটি তখন কঠিনতর হয়ে যায়। (বিস্তারিত…)
বিস্তারিত পড়ুন about কিভাবে নর ও মাদি কবুতর চিনবেন ?
  • 1