ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি)

ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি) “যে দেশে গুণের সমাদর নেই সে দেশে গুণী জন্মাতে পারে না” - ডঃ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ। ওলী মনসুর হাল্লাজ (রহ:) একজন মুসলিম সাধক ছিলেন। তিনি ৮০ বছর বয়সে আল্লাহ্‌র ধ্যানে মসগুল হন। বেশ কিছুদিন পর তিনি হঠাৎ নিজেকে 'আনাল হক' বলে দাবী করে উঠলেন। মানে 'আমিই খোদা'। আর এ ধরনের কথা ইসলামে নিষিদ্ধ ও কুফরের অন্তভুক্ত। এই অভিযোগের অপরাধে তার মৃত্যুদণ্ডের রায় হলে তাকে প্রথমে দোররা মারা হল, কিন্তু তাতে তার মৃত্যু হয় না। এবার তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যু কার্যকর করার আদেশ হল। তাকে যখন ফাঁসিতে ঝুলানর জন্য নেয়া হল। তখন কোনমতেই তার মৃত্যু হল না। ফলে তাকে এনে টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলা হল কিন্তু তার শরীরের প্রতিটি কনা ‘আনাল হক’ জিকির করতে লাগল। ফলে তেল ঢেলে তাতে আগুন দিয়া হল। কিন্তু তাতেও কাজ হল না। আগুনে পুড়ানো প্রতিটি কয়লা একই ভাবে জিকির করতে লাগল। এবার সেই কয়লা গুলো টাইগ্রিস নদীতে ফেলে দিলে ঘটল বিপত্তি। নদী ভীষণ ভাবে ফুলে বাগদাদ নগরির দিকে ধেয়ে আসতে লাগল। এটা দেখে তার এক শিস্য ওলী মনসুর হাল্লাজ (রহ:) একটি জামা এনে নদীতে ফেলে দিলে নদী শান্ত হয়। এরপর অভিযোগকারী বুঝতে …
বিস্তারিত পড়ুন about ভুল সবই ভুল (কবুতর কেস স্টাডি)
  • 0

আমরা কি কৃতজ্ঞ ? (কবুতর এর কেস স্টাডি)

“নিশ্চয় মানুষ বড় অকৃতজ্ঞ।“ (সূরা হাজ্জ্বঃ আয়াত-৬৬) এক গ্রামে এক লোক বাস করত। লোকে তাকে নাখোশ বা অকৃতজ্ঞ নামে ডাকত। কারন সে কোনদিন কোনকিছুতেই সন্তুষ্ট হতে পারত না বা কেউ থাকে কোন কাজে খুশি করতে পারত না। কেউ কোনদিন দেখি নাই যে সে কাউকে খুশি মনে একটা ধন্যবাদ দিয়েছে বা তাকে কিছু করার পর একটু হাসিমাখা মুখ দেখেছে। এমন হইছে যে কেউ তাকে কোন উপহার দিয়েছে, সে হয়ত উপহারটা দেখে বলল। হুম, আসলে এটা তেমন ভাল কিন্তু এ রকম আগে আমার অনেক ছিল বা হয়ত কেউ তাকে দাওয়াত দিয়েছে। সে খাওয়াদাওয়ার পর বলল," আসলে, খাবার টা তেমন মজা হয়নি, অমুক অমুক খাবারে লবন একটু কম হয়েছে! আর অমুক অমুক খাবারে ঝাল একটু বেশী হয়েছে।" এ ভাবে দিন যায় বছর যায় কিন্তু একই রকম, শেষে সবাই মিলে ঠিক করল যে তাকে তুষ্ট করার জন্য কি করা যায়। অনেক চিন্তা ভাবনা করে বের করা হল। সবাই মিলে চাঁদা তুলে তাকে বিশাল আয়োজন করে খাওয়ান হবে ও অনেক ভাল ভাল দামি দামি উপহার দিয়া হবে এবার দেখি সে কি বলে? যেমন কথা তেমন কাজ। অনেক আয়োজন করা হল অনেক উপহার কিনা হল, এরপর যথা সময়ে থাকে দাওয়াত ও করা হল। অনেক আইটেম এর খাবার অনেক উপহার সাধারন যে কোন লোক দেখলে অবাক…
বিস্তারিত পড়ুন about আমরা কি কৃতজ্ঞ ? (কবুতর এর কেস স্টাডি)
  • 2

কবুতরের/পাখির উপর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

অনেকেই কবুতর পালন কে একটি পেশা হিসেবে নিতে শুরু করেছে। ইদানিং বেশিরভাগ খামারি তাদের কবুতরের ঠাণ্ডা,কাসি,শ্বাস কষ্ট, ডায়রিয়া ইত্যাদি সহ নানা সাধারন কিছু অসুবিধার সম্মুখিন হচ্ছেন। যদিও তারা খামার ব্যাবস্থাপনার জন্য যা যা দরকার তাই করছেন কিন্তু তবুও এর থেকে পরিত্রাণ পাচ্ছেন না। আর কারন কি? একটু চিন্তা করে দেখা দরকার ! কিছু লোক ও উপদেশ কারী প্রায়ই টিস্যুর অনাহত ক্ষতির চিন্তা না করেই তারা অবাধে অ্যান্টিবায়োটিক নির্ধারণ করে থাকেন। কেও কেও আবার এন্টিবায়োটিক +হারবাল+হমিও+সাধারন ঔষধ একসঙ্গে মিক্স করে ধরে খাওয়ানো নির্দেশ দিয়ে থাকেন। ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধ ও নির্মূল করার জন্য। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে একটি দীর্ঘায়িত সময়ের যখন ব্যবহৃত কিছু অ্যান্টিবায়োটিক (Ciprofloxacin, ampicillin এবং kanamycin) এই তিনটি, অক্সিডেটিভ স্ট্রেস (অক্সিজেন এর ভারসাম্যহীনতা) বলে একটি ঘটমান বিষয় পাওয়া গেছে । এই প্রভাবে কোষ রাসায়নিকভাবে প্রতিক্রিয়াশীল অক্সিজেন অণু উত্পাদন করতে বার্থ হয় এর ফলে ডিএনএ সৃষ্ট ক্ষতি, এনজাইম এবং ব্যাকটেরিয়ার কোষ ঝিল্লির এছাড়াও শরীরের নিজের ঘর প্রভাবিত করতে পা…
বিস্তারিত পড়ুন about কবুতরের/পাখির উপর অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া
  • 0